Home / ভিডিও / সি সি টিভি ভিডিও, দেখলে কান্না ঠেকানো দায়, সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ |

সি সি টিভি ভিডিও, দেখলে কান্না ঠেকানো দায়, সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ |

বি: দ্র : ই্উটিউব থেকে প্রকাশিত সকল ভিডিওর দায় সম্পুর্ন ই্উটিউব চ্যানেল এর । এর সাথে আমরা কোন ভাবে সংশ্লিষ্ট নয় এবং আমাদের পেইজ কোন প্রকার দায় নিবেনা।ভিডিওটির উপর কারও আপত্তি থাকলে তা অপসারন করা হবে। প্রতিদিন ঘটে যাওয়া নানা রকম ঘটনা আপনাদের মাঝে তুলে ধরা এবং সামাজিক সচেতনতা আমাদের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য ।

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে পোষ্টের নিচে চলে যান।

আরো পড়ুনঃ

লিফট ব্যবহারে আদবকেতা

নিজেদের প্রয়োজনে আমরা অফিস, হাসপাতাল, শপিং মলে লিফট ব্যবহার করে থাকি। এসব জায়গায় আমরা অনেকে মাঝেমধ্যে এমন সব আচরণ করি যা অন্যের বিরক্তের কারণ হয়। অনেক সময় ভুল আচরণের কারণে অসাবধানতাবশত দুর্ঘটনাও ঘটে থাকে। তাই লিফটে ওঠা-নামার সময় কিছু আদবকেতা মেনে চলা উচিত। লাইফস্টাইল-বিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ার্ক এটিকেট এবং হংকং টেটলারে লিফট ব্যবহারের আদবকেতার কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়েছে।

জেনে নিন লিফট ব্যবহারের সময় কী কী আদবকেতা মেনে চলবেন-

• যদি আপনি লিফটে ওঠার পর লিফটের দরজা বন্ধ হওয়ার আগে অন্য কাউকে আসতে দেখেন তাহলে দরজা খোলার বাটন চেপে ধরে রাখুন। এটা এক ধরনের ভদ্রতা। অথবা দরজা বন্ধ হওয়ার সময় সে ঢুকতে গেলে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকবে।

• লিফটের মধ্যে কথা কম বলুন। উচ্চস্বরে কথা তো একদমই বলবেন না।

• লিফটে ফোনের নেটওয়ার্ক থাকে না। তাই কথা না শোনা গেলে অযথা চিৎকার করে কথা বলতে যাবেন না।

• পরিচিত ব্যক্তির সঙ্গে লিফটে দেখা হয়ে গেলে তার সঙ্গে সৌজন্যমূলক কথা বলুন। অতিরিক্ত কথা বলে তাকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলবেন না।

• লিফটে ওঠার জন্য তাড়াহুড়া করবেন না। লাইনে দাঁড়ান, ধীরেসুস্থে লিফটে উঠুন এবং নামুন।

• এক বা দোতলায় যাওয়ার সময় চেষ্টা করুন যাতে লিফট ব্যবহার না করতে।

• দৌঁড়ে এসে প্রায় বন্ধ হয়ে যাওয়া লিফটে উঠতে যাবেন না। এতে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

• লিফটে চড়ার আগে নামতে দিন পরে উঠুন। এতে ধাক্কা লাগার সম্ভাবনা কম থাকবে।

• লিফটে যখন মানুষ কম থাকবে তখন মালপত্র ওঠানামার কাজ সেরে ফেলুন।

• ভদ্রভাবে সংকুচিত হয়ে লিফটে দাঁড়ান। যাতে অন্য কারোর অস্বস্তির কারণ না হন।

• লিফটের মধ্যে শব্দ করে খাবেন না। যতটা সম্ভব লিফটে খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

• লিফটে কাউকে ধাক্কা দিয়ে, কারো মাথা ডিঙিয়ে বাটন প্রেস করতে যাবেন না। ভদ্রভাবে নিজের ফ্লোর-বাটনে প্রেস করুন।

• লিফটের মধ্যে জোরে হাঁচি কিংবা কাশি এলে মুখে রুমাল চাপা দিন।

• লিফটম্যানদের সঙ্গে অযথা দুর্ব্যবহার করবেন না। তাদের সঙ্গে যথাসম্ভব ভালো ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

• কোনো কারণে লিফট মাঝপথে আটকে গেলে ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করুন। অযথা চেচামেচি করবেন না।

• হাসপাতালের লিফটে আগে রোগীকে উঠতে দিন। তারপর নিজে উঠুন।

• শপিং ব্যাগ যেন কারো ঝামেলা না করে সেদিকে খেয়াল রাখুন।

• বয়স্কদের আগে লিফটে উঠতে দিন। অযথা তাড়াহুড়া করে তাঁদের সমস্যা করবেন না।

• শিশুদের নিয়ে সাবধানে লিফটে চলাচল করুন। যাতে কোনো দুর্ঘটনা না ঘটে।

• লিফটে মালামাল ওঠানোর সময় খেয়াল রাখবেন কেউ যাতে ব্যথা না পায়

About Admin Rafi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *