Home / লাইফস্টাইল / যে সমস্যাগুলো থাকলে আপনি একদমই কামরাঙ্গা খেতে পারবেন না!

যে সমস্যাগুলো থাকলে আপনি একদমই কামরাঙ্গা খেতে পারবেন না!

কি যে বলেন, এমন একটি সুস্বাদু ফল কামরাঙ্গা খাওয়া কি বিষ? কামরাঙ্গা কাঁচা টক অবস্থায় যেমন সুস্বাদু, তেমনি পাকা মিষ্টি অবস্থায়ও অনেক উপাদেয়। প্রাক ঐতিহাসিক যুগ থেকে কামরাঙ্গা বেশ জনপ্রিয় ফল।

জনপ্রিয়তার কারণ ফল হিসেবে সাধারণ মানুষের পছন্দ আর এর ওষুধি গুণাগুণ। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে এর ভূমিকা আছে বলে অনেকের কাছে সমাদৃত। কিন্তু অতি সম্প্রতি কামরাঙ্গা বা কামরাঙ্গার রস খাওয়ার পর কিডনি বিকল হওয়াতে যত বিপত্তি, এর মধ্যে অনেকেই তা ডায়াবেটিসের জন্য খেয়েছেন।

কামরাঙ্গার কারণে কিডনি বিকল কি নতুন? আগে কি কখনও হয়নি? না তা হওয়ার নয়। চিকিৎসাবিজ্ঞানের উন্নতি ও স্বাস্থ্য সচেতনতা বাড়ার ফলে অজানা অনেক রোগ সম্পর্কে মানুষ জানতে পারছে।

কামরাঙ্গা বা তার রস মানুষ কী কারণে খায়? সাধারণত ফল হিসেবে কাঁচা বা পাকা কামরাঙ্গা বেশ জনপ্রিয়। শুধু বাংলাদেশ নয়, এশিয়ার অনেক দেশে ডায়াবেটিসসহ আরও কিছু রোগের চিকিৎসায় প্রচুর পরিমাণে কামরাঙ্গার রস একসঙ্গে অথবা প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট পরিমাণে অনেক দিন ধরে পান করে থাকে।

কামরাঙ্গায় বিশেষ কী রয়েছে?

কামরাঙ্গায় রয়েছে নানা পুষ্টিগুণ। এছাড়াও রয়েছে দুটি বিশেষ উপাদান। যেমন-

১. অক্সালিক অ্যাসিড।

২. ক্যারাম্বক্সিন।

অক্সালিক অ্যাসিড, টক অবস্থায় মিষ্টি অবস্থার চেয়ে বেশি থাকে।

কামরাঙ্গা কীভাবে ক্ষতি করে? সাধারণত যাদের কিডনি ভালো স্বাভাবিক পরিমাণে কামরাঙ্গা খেলে তাদের কোনো ক্ষতি হয় না। তবে এরা যদি অত্যধিক কামরাঙ্গা বা রস অথবা নির্দিষ্ট পরিমাণে অনেক দিন গ্রহণ করে তাহলে শরীরে অতিমাত্রায় অক্সালিক অ্যাসিড জমে গিয়ে অক্সালেট নেফ্রোপ্যাথি হয়ে কিডনি বিকল হতে পারে।

তাছাড়া যাদের কিডনি সমস্যা রয়েছে, তারা যদি অল্প পরিমাণ কামরাঙ্গা বা রস যেমন একটি বা কয়েক টুকরা কামরাঙ্গা খেলেই কিডনি বিকল হয়ে যায়।

অন্যদিকে যাদের ক্রনিক কিডনি ডিজিজ বা ক্রনিক কিডনি ফেইলিউর রয়েছে, তারা কামরাঙ্গা খেলে অজ্ঞান পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে। এই অবস্থায় মানুষের মৃত্যুর হার বেশি। আগে মনে করা হতো কিডনি ফেইলিউরের মাত্রা বাড়ার কারণে এ অবস্থা হয়, কিন্তু পরবর্তীকালে দেখা গেছে কামরাঙ্গার ক্যারাম্বক্সিন নামক উপাদানের জন্য এ অবস্থা হয়।

তাহলে কামরাঙ্গা কী একদম খাওয়া যাবে না? আসলে তা নয়, যাদের কিডনি ভালো তারা স্বাভাবিক পরিমাণ কামরাঙ্গা খেতে পারবেন। অত্যধিক পরিমাণ কামরাঙ্গা খাওয়া এবং যাদের কিডনি সমস্যা আছে তারা কামরাঙ্গা বা এর রস পান হতে পুরোপুরিভাবে বিরত থাকবেন।

প্রাকৃতিক বা গাছ-গাছড়া থেকে উৎপন্ন এমনও ওষুধ আছে যার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে কেউ কিছুই জানেন না, তা সেবন আপনার মৃত্যুর কারণও হতে পারে। তাই উদ্ভিদ ওষুধ সব সময় নিরাপদ ভাবার উপায় নেই।

মেডিসিন ও স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ কনটেন্ট ক্রেডিট: মেডিভয়েস।

About Admin Rafi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *