Breaking News
Home / খেলা / ম্যানসিটি-টটেনহ্যামের বিতর্ক ছড়ানো ড্র

ম্যানসিটি-টটেনহ্যামের বিতর্ক ছড়ানো ড্র

50209_Man-cityআগের ম্যাচের এভারটনের কাছে ৪-০ গোলে হেরে লজ্জায় পড়েছিল ম্যানচেস্টার সিটি। পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানের দল টটেনহ্যামের বিপক্ষে তাদের ছিল ঘুরে দাঁড়ানোর ম্যাচ। কিন্তু সেটা সম্ভব হয়নি। ইত্তিহাদে ম্যানসিটিকে ২-২ গোলে রুখে দিয়েছে টটেনহ্যাম। এই ম্যাচের রেফারিং নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। ম্যাচের প্রথমার্ধ ছিল গোলশূন্য। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ৫ মিনিটের ব্যবধানে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিক ম্যানসিটি। এই দুই গোলেই স্পষ্ট ভুল ছিল টটেনহ্যামের গোলরক্ষক হুগো লরিসের। ৪৯ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে কেভিন ডি ব্রুইনা উঁচু করে একটি বল সামনে বাড়ান। সেটাকে বিপদমুক্ত করতে সামনের দিকে এগিয়ে যান টটেনহ্যামের গোলরক্ষক হুগো লরিস। কিন্তু বলের চেয়ে তিনি অনেক বেশি সামনে এগিয়ে যান। এতে তার মাথার ওপর দিয়ে বল গোলবারের সামনে পড়ে। লাফিয়ে হেড করার চেষ্টা করলেও বল মাথায় ছোঁয়াতে ব্যর্থ হন তিনি। এই সুযোগে দ্রুত সামনের দিকে দৌঁড়ে টটেনহ্যামরে জালে বল জড়ান লেরয় সানে। এর চার মিনিট বাদে আরেকবার ভুলকরেন লরিস। ডান দিক থেকে ম্যানসিটির রহিম স্টার্লিং একটি ক্রস দেন। সেটা লরিসের সামনেই ছিল। বলটি ধরতে পারতেন তিনি। কিন্তু তার ঢিলেমির সুযোগ কাজে লাগান ডি ব্রুইনা। তিনি গতির সঙ্গে দৌঁড়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। এদিন বাজে রেফারিং দেখা গেলো। ম্যানসিটির রহিম স্টার্লিংকে নিজেদের বিপদসীমার মধ্যে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন টটেনহ্যামের কাইল ওয়াকার। সাদা চোখে সেটা ছিল স্পষ্ট পেনাল্টি। কিন্তু রেফারে সেদিকে কর্ণপাত করেননি। ম্যাচ শেষে বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ম্যানসিটির কোচ পেপ গার্দিওলা। এমনকি কাইল নিজেই স্বীকার করেছেন যে, তিনি বড় বাঁচা গেছেন। ইচ্ছাকৃতই তিনি তাকে ফাউল করেছিলেন। ২-০ গোলে এগিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত সেটা ধরে রাখতে পারেনি সিটির দলটি। ৫৮ মিনিটে সফরকারী টটেনহ্যামের ব্যবদান কমান ডেলে আলী। আর ৭৭ মিনিটে ২-২ গোলে সমতায় ফেরান দক্ষিণ কোরিয়ার মিডফিল্ডার সন হিউং মিন। তারপরও শেষ দিকে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায় ম্যানসিটি। ৮২ মিনিটে রহিম স্টার্লিংয়ে তুলে মাঠে নামানো হয় ব্রাজিলের গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে। ক’দিন আগে ইংল্যান্ডের ক্লাবটিতে যোগ দিয়েছেন তিনি। অভিষেক ম্যাচে মাঠে নামার দুই মিনিটের মধ্যেই প্রতিপক্ষের জাল খুঁজে পায় তার পায়ের বল। ম্যানসিটির এগিয়ে দেয়ার আনন্দে লাফিয়ে ওঠেন ব্রাজিলের এ তরুণ ফরোয়ার্ড। কিন্তু রেফারির অফসাইডের বাঁশিতে মুহূর্তে সেটা মাটি হয়ে যায়। অভিষেকে গোলের গৌরব থেকে বঞ্চিত হন তিনি। এই ড্র’তে ২২ ম্যাচে ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে টটেনহ্যাম। আর ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে ম্যানচেস্টার সিটি।  

About Saimur Rahman

Leave a Reply