Breaking News
Home / বিনোদন / শাহরুখকে দেখতে গিয়ে ভক্তের মৃত্যু

শাহরুখকে দেখতে গিয়ে ভক্তের মৃত্যু

50531_shahrukhমুম্বই থেকে নতুন ছবির প্রচারে ট্রেনে করে দিল্লি যাচ্ছিলেন শাহরুখ খান। ট্রেনে উঠেই বলেছিলেন, ‘আমি আসছি’। তখন শাহরুখ জানেন না, এই ট্রেন সফরেই কী মারাত্মক ঘটনা অপেক্ষা করে রয়েছে তাঁর জন্য। বুধবার মুক্তি পেতে চলেছে শাহরুখের বহু প্রতীক্ষিত ছবি  ‘রইস’। আর তার আগেই ছবির প্রচারকে ঘিরে তৈরি হল বিতর্ক। ‘রইস’-এর প্রচারে মঙ্গলবার রাতে মুম্বই থেকে অগস্টক্রান্তি এক্সপ্রেসে চেপে দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা দেন শাহরুখ। আর তাঁকে একঝলক দেখতে গিয়েই ভদোদরা স্টেশনে ভিড়ের চাপে মৃত্যু হল শাহরুখের এক ভক্তের। যিনি আবার স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাও। মুম্বই থেকে মঙ্গলবার যখন শাহরুখ রওনা দেন, তখনই মুম্বই সেন্ট্রাল স্টেশন কিং খানকে নিয়ে উন্মাদনা ছিল তুঙ্গে। রেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ ভদোদরা স্টেশনে পৌঁছায়অগস্টক্রান্তি এক্সপ্রেস। স্টেশনে ট্রেন ঢোকার আগে থেকেই অসংখ্য শাহরুখ ভক্ত সেখানে ভিড় জমিয়েছিলেন। ট্রেন স্টেশনে পৌঁছনোর পরে নায়ককে একঝলক দেখার জন্য শাহরুখ ভক্তদের উন্মাদনা চরমে পৌঁছয়। দশ মিনিট স্টেশনে দাঁড়িয়ে ছিল ট্রেনটি। স্বপ্নের নায়ককে দেখতে ট্রেনের জানালার উপরে হুমড়ি খেয়ে পড়ে জনতা। তাঁদের সামাল দিতে হিমশিম খায় পুলিশ। এর মধ্যে ট্রেন চলতে শুরু করে। প্রবল ভিড়ের চাপে অসুস্থ হয়ে পড়েন ফরিদ খান পঠান নামে এক ব্যক্তি। নিজের স্ত্রী, মেয়েকে নিয়ে প্রিয় নায়ককে দেখার জন্য স্টেশনে এসেছিলেন ওই শাহরুখ ভক্ত। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা এবং সমাজকর্মী ফরিদের মৃত্যু হয় বলে প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে। ভিড়ের চাপে দুই পুলিশকর্মীও অসুস্থ হয়ে পড়েন। চিকিৎসার পরে তাঁরা অবশ্য বিপদমুক্ত। ভিড় সামাল দিতে পুলিশকে মৃদু লাঠিচার্জও করতে হয়। জানা গিয়েছে, শাহরুখের সঙ্গে দেখা করার জন্য দুই ক্রিকেটার ইউসুফ এবং ইরফান পঠানও ভদোদরা স্টেশনে গিয়েছিলেন।

ট্রেনে ওঠার আগে শাহরুখ বলেছিলেন, অনেকদিন বাদে ট্রেনে চড়ছি। কিন্তু ‘রইস’-এর পুরো টিম রয়েছে। আশা করি খুব মজা হবে। কিন্তু তাঁর ট্রেন সফরের এই অভিজ্ঞতা যে এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকবে, তা বোধহয় দুঃস্বপ্নেও ভাবেননি শাহরুখ।

About Saimur Rahman

Leave a Reply