Home / খেলা / লর্ডসে অস্ট্রেলীয় দাপট

লর্ডসে অস্ট্রেলীয় দাপট

ইংল্যান্ডকে পেলে বরাবরই রুদ্রমূর্তি ধারণ করতে ভালোবাসেন অ্যারন ফিঞ্চ। ওয়ানডেতে ক্যারিয়ার গড় যেখানে ৪০.৮০, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে গড়টা সেখানে ৫০.১৩। ২৫ ম্যাচে ১ হাজার ১৫৩ রান, ১৪ ওয়ানডে সেঞ্চুরির ৬টিই ইংলিশদের বিপক্ষে। আজও সে ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছেন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক, পেয়ে গেছেন টুর্নামেন্টে নিজের চতুর্থ ফিফটি।
প্রথম উইকেটের দেখা পাওয়া পর্যন্ত ২৩ ওভার অপেক্ষা করতে হয়েছে ইংল্যান্ডকে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ২৭ ওভারে ১ উইকেটে ১৪৮ রান। ৫৩ রান করে মঈন আলীর বলে ফিরেছেন ওয়ার্নার। ওয়ার্নারের বিদায়ের পর ক্রিজে আসা উসমান খাজাকে সঙ্গে নিয়ে ফিঞ্চ অপরাজিত আছেন ৮১ রানে। খাজা অপরাজিত ৯ রানে।

ফিফটি পেয়েছেন ফিঞ্চের ওপেনিং সঙ্গী ডেভিড ওয়ার্নারও। সর্বোচ্চ রান নিয়ে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে যেন ইঁদুর দৌড় খেলা চলছে তাঁর। গতকাল টপকে গিয়েছিলেন সাকিব, আজ আবার শীর্ষে উঠে গেলেন ওয়ার্নার। পেয়ে গেছেন টুর্নামেন্টে নিজের তৃতীয় ফিফটি। প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে এ বিশ্বকাপে ৫০০ রানের গণ্ডিও পেরিয়েছেন এ বাঁ হাতি। তবে এরপরই ফিরতে হয়েছে মঈন আলীর বলে। ফেরার আগে ফিঞ্চের সঙ্গে মিলে দলকে এনে দিয়েছেন ১২৩ রানের উদ্বোধনী জুটি।

ইংলিশ অধিনায়ক এউইন মরগানের টসে জিতে বোলিং নেওয়ার সিদ্ধান্তকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মাত্র ১৮ ওভারেই শতরানের জুটি গড়ে ফেলেছিলেন ফিঞ্চ-ওয়ার্নার। পঞ্চম ওভারে জফরা আর্চারের বলে কঠিন একটা সুযোগ দিয়েছিলেন ফিঞ্চ। ঝাঁপিয়ে পড়েও ক্যাচটা ধরে রাখতে পারেননি জেমস ভিন্স। পরের ওভারে ফিঞ্চের বিপক্ষে রিভিউও নিয়েছিল ইংল্যান্ড। আম্পায়ার্স কল হওয়ায় বেঁচে গেছেন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক। দ্বাদশ ওভারে ফিঞ্চ আরেকটি কঠিন সুযোগ দিয়েছিলেন, সেটিও ধরতে পারেননি ভিন্স।

দুই ইংলিশ পেসার আর্চার ও উড বেশ ভালো বল করেছেন। দারুণ গতিতে ভেতরে ঢোকা বলে ফিঞ্চের দুর্বলতার কথা জেনে বারবার সেখানে বল করে গেছেন উড। কিন্তু কাজের কাজ হয়নি কিছুই। শেষ পর্যন্ত অফ স্পিনার মঈন আলীই ইংল্যান্ডকে এনে দিয়েছেন প্রথম সাফল্য।

About hasan mahmmud

Leave a Reply