Home / জাতীয় / পেঁয়াজের ট্রাক যেন বেশি আসে!

পেঁয়াজের ট্রাক যেন বেশি আসে!

অনলাইন ডেস্ক||

পেঁয়াজ, রসুন, আদাসহ দাম বাড়তে পারে এমন পণ্য কোরবানির আগেই টিসিবির মাধ্যমে খোলা বাজারে বিক্রির নির্দেশ দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। বুধবার (২৪ জুলাই) সচিবালয়ে ভোগ্যপণ্যের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠকে এ নির্দেশ দেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রয়োজনীয় সব রকম ব্যবস্থা নেবে সরকার।

ভারত থেকে প্রতি টন পেঁয়াজের আমদানিমূল্য এখন ২৩১ ডলার ৪২ সেন্ট। ট্যারিফ কমিশনের হিসেবে, এই দর এক মাস আগে থেকে সাড়ে ৮ ভাগের মতো বেশি। যদিও এই দর বৃদ্ধির কথা বলে দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ২৮ শতাংশের মতো। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যমতে, চলতি বছরের মে মাস পর্যন্ত এলসি খোলা হয় ১০ লাখ ৬৮ হাজার টন যা আগের বছরের চেয়ে ২ লাখ টন বেশি। আমদানি ও এলসি মূল্যের তুলনায় দাম এত অস্বাভাবিক মাত্রায় কেন বাড়লো এমন প্রশ্ন ছিল ব্যবসায়ীদের কাছে? জবাবে তারা বলেন, ‘আমদানিকারকদের এখানে কোনো হাত নাই। যা করে তা ইন্ডিয়া থেকে আর বন্দরের ব্যবসায়ীরা। আপনারা যদি প্রতিদিন সোনামসজিদ আর ভোমরা দিয়ে দেড়শ থেকে দুইশ গাড়ি ঢোকান তাহলে কোরবানির পর্যন্ত পেঁয়াজ নিয়ে কোনো সমস্যা থাকবে না।’

এমন অবস্থায় বৈঠকে বসেই আমদানি প্রক্রিয়া আরো গতিশীল করতে স্থলবন্দরের জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে কথা বলেন বাণিজ্য সচিব। এসময় ফোনে লাউড স্পিকার দিয়ে বাণিজ্য সচিব মফিজুর রহমান বলেন,‘সাতক্ষীরা (ডিসি) বলছো। আমি কমার্স সেক্রেটারি বলছি। তোমাকে যে বলেছিলাম পেঁয়াজের যেন ট্রাক বেশি আসে। তুমি কি করলে?’ একই সাথে রসুন, আদার দাম বৃদ্ধিতেও অসন্তোষ জানান সচিব। কোরবানির আগে যেন কোনো পণ্যের দাম না বাড়ে যেদিকে খেয়াল রাখতে ব্যবসায়ীদের আহ্বান জানান মন্ত্রী ও সচিব।  বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মফিজুর রহমান বলেন, ‘আপনাদের কাছে অনুরোধ লাভ একটু কম করবেন দাম কমিয়ে দেবেন।’

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সী বলেন, যদি এমন বাড়তি থাকে তবে টিসিবি চালু হবে। সরকার ভর্তুকি দিবে। সাধারণ মানুষ যেনও ন্যায্যমূলে পণ্য পায় সেটাই আমরা চায়।

বৈঠকে বলা হয়, চিনি , তেল, ডাল মশলাসহ অন্য পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে আছে। কোরবানির সময় পশুবাহী, আমদানি রফতানি, পচনশীল পণ্যবাহী গাড়ি যেন কোথাও বাধার মুখে না পড়ে সে বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সহায়তা চাওয়া হয়।

About News Desk

Leave a Reply