Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / কাবার প্রবেশ পথে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক জীবাণুমুক্তকরণ মেশিন

কাবার প্রবেশ পথে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক জীবাণুমুক্তকরণ মেশিন

কারোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে মক্কায় পবিত্র কাবা ঘর এবং মদিনায় মসজিদে নববীতে সিমিত সংখ্যক মানুষ যাচ্ছেন। তবে সম্প্রতি পবিত্র এই দুটি জায়গা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সি। আর তারই অংশ হিসেবে কাবাঘরের প্রবেশপথে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক জীবাণুমুক্তকরণ মেশিন।

মসজিদগুলোর মূল প্রবেশপথে যে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে তারই অংশ হিসেবে সবশেষ প্রযুক্তি ইনস্টল করা হয়েছে।উন্নত মানের এ মেশিনের মাধ্যমে ফটকে সেলফ স্যানিটাইজার স্প্রেসহ সংক্রমণ নির্বীজকরণ করার এবং থার্মাল ক্যামেরা দিয়ে তাপমাত্রা মাপার ব্যবস্থা থাকবে। ক্যামেরাগুলোর ৬ মিটারের মধ্যে একসাথে বেশ কয়েকজনের তাপমাত্রা মাপা, সংক্রমণ নিয়ে আগত মুসল্লিদের গতি পর্যবেক্ষণ এবং সন্দেহভাজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শনাক্ত করার জন্য স্মার্ট স্ক্রিন ব্যবহার করা হবে।সম্প্রতি খুব শিগগির মক্কার মসজিদুল হারাম এবং মদিনায় মসজিদে নববী সাধারণ মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সির প্রধান শেখ আব্দুর রহমান আল সুদাইস।

*****

 

কারোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে মক্কায় পবিত্র কাবা ঘর এবং মদিনায় মসজিদে নববীতে সিমিত সংখ্যক মানুষ যাচ্ছেন। তবে সম্প্রতি পবিত্র এই দুটি জায়গা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সি। আর তারই অংশ হিসেবে কাবাঘরের প্রবেশপথে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক জীবাণুমুক্তকরণ মেশিন।

মসজিদগুলোর মূল প্রবেশপথে যে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে তারই অংশ হিসেবে সবশেষ প্রযুক্তি ইনস্টল করা হয়েছে।উন্নত মানের এ মেশিনের মাধ্যমে ফটকে সেলফ স্যানিটাইজার স্প্রেসহ সংক্রমণ নির্বীজকরণ করার এবং থার্মাল ক্যামেরা দিয়ে তাপমাত্রা মাপার ব্যবস্থা থাকবে। ক্যামেরাগুলোর ৬ মিটারের মধ্যে একসাথে বেশ কয়েকজনের তাপমাত্রা মাপা, সংক্রমণ নিয়ে আগত মুসল্লিদের গতি পর্যবেক্ষণ এবং সন্দেহভাজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শনাক্ত করার জন্য স্মার্ট স্ক্রিন ব্যবহার করা হবে।সম্প্রতি খুব শিগগির মক্কার মসজিদুল হারাম এবং মদিনায় মসজিদে নববী সাধারণ মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সির প্রধান শেখ আব্দুর রহমান আল সুদাইস।

 

**

 

কারোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে মক্কায় পবিত্র কাবা ঘর এবং মদিনায় মসজিদে নববীতে সিমিত সংখ্যক মানুষ যাচ্ছেন। তবে সম্প্রতি পবিত্র এই দুটি জায়গা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সি। আর তারই অংশ হিসেবে কাবাঘরের প্রবেশপথে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক জীবাণুমুক্তকরণ মেশিন।

মসজিদগুলোর মূল প্রবেশপথে যে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে তারই অংশ হিসেবে সবশেষ প্রযুক্তি ইনস্টল করা হয়েছে।উন্নত মানের এ মেশিনের মাধ্যমে ফটকে সেলফ স্যানিটাইজার স্প্রেসহ সংক্রমণ নির্বীজকরণ করার এবং থার্মাল ক্যামেরা দিয়ে তাপমাত্রা মাপার ব্যবস্থা থাকবে। ক্যামেরাগুলোর ৬ মিটারের মধ্যে একসাথে বেশ কয়েকজনের তাপমাত্রা মাপা, সংক্রমণ নিয়ে আগত মুসল্লিদের গতি পর্যবেক্ষণ এবং সন্দেহভাজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শনাক্ত করার জন্য স্মার্ট স্ক্রিন ব্যবহার করা হবে।সম্প্রতি খুব শিগগির মক্কার মসজিদুল হারাম এবং মদিনায় মসজিদে নববী সাধারণ মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সির প্রধান শেখ আব্দুর রহমান আল সুদাইস।

 

***

 

কারোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে মক্কায় পবিত্র কাবা ঘর এবং মদিনায় মসজিদে নববীতে সিমিত সংখ্যক মানুষ যাচ্ছেন। তবে সম্প্রতি পবিত্র এই দুটি জায়গা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সি। আর তারই অংশ হিসেবে কাবাঘরের প্রবেশপথে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক জীবাণুমুক্তকরণ মেশিন।

মসজিদগুলোর মূল প্রবেশপথে যে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে তারই অংশ হিসেবে সবশেষ প্রযুক্তি ইনস্টল করা হয়েছে।উন্নত মানের এ মেশিনের মাধ্যমে ফটকে সেলফ স্যানিটাইজার স্প্রেসহ সংক্রমণ নির্বীজকরণ করার এবং থার্মাল ক্যামেরা দিয়ে তাপমাত্রা মাপার ব্যবস্থা থাকবে। ক্যামেরাগুলোর ৬ মিটারের মধ্যে একসাথে বেশ কয়েকজনের তাপমাত্রা মাপা, সংক্রমণ নিয়ে আগত মুসল্লিদের গতি পর্যবেক্ষণ এবং সন্দেহভাজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শনাক্ত করার জন্য স্মার্ট স্ক্রিন ব্যবহার করা হবে।সম্প্রতি খুব শিগগির মক্কার মসজিদুল হারাম এবং মদিনায় মসজিদে নববী সাধারণ মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সির প্রধান শেখ আব্দুর রহমান আল সুদাইস।

 

**

কারোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে মক্কায় পবিত্র কাবা ঘর এবং মদিনায় মসজিদে নববীতে সিমিত সংখ্যক মানুষ যাচ্ছেন। তবে সম্প্রতি পবিত্র এই দুটি জায়গা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সি। আর তারই অংশ হিসেবে কাবাঘরের প্রবেশপথে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক জীবাণুমুক্তকরণ মেশিন।

মসজিদগুলোর মূল প্রবেশপথে যে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে তারই অংশ হিসেবে সবশেষ প্রযুক্তি ইনস্টল করা হয়েছে।উন্নত মানের এ মেশিনের মাধ্যমে ফটকে সেলফ স্যানিটাইজার স্প্রেসহ সংক্রমণ নির্বীজকরণ করার এবং থার্মাল ক্যামেরা দিয়ে তাপমাত্রা মাপার ব্যবস্থা থাকবে। ক্যামেরাগুলোর ৬ মিটারের মধ্যে একসাথে বেশ কয়েকজনের তাপমাত্রা মাপা, সংক্রমণ নিয়ে আগত মুসল্লিদের গতি পর্যবেক্ষণ এবং সন্দেহভাজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শনাক্ত করার জন্য স্মার্ট স্ক্রিন ব্যবহার করা হবে।সম্প্রতি খুব শিগগির মক্কার মসজিদুল হারাম এবং মদিনায় মসজিদে নববী সাধারণ মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন দুই মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সির প্রধান শেখ আব্দুর রহমান আল সুদাইস।

About Saimur Rahman

Leave a Reply