Breaking News
Home / বাংলাদেশ / পাউবোর গাছ কেটে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা

পাউবোর গাছ কেটে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা

খাগড়াছড়ির রামগড়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) অফিসের সংরক্ষিত স্থান থেকে অর্ধ-শতবর্ষী গাছ রাতের আঁধারে কেটে পাচারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে অফিশিয়ালি লিখিত এবং বন বিভাগের কোনো অনুমতি ছিল না বলে জানা গেছে। গাছ কাটার সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর চলছে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পানি উন্নয়ন বোর্ড এর পাশে বসবাসরত কয়েকজন জানান, কিছুদিন আগে অফিসে কর্মরত নাইট গার্ড নাছির বাইরে থেকে লোকজন নিয়ে এসে কড়ই গাছগুলো কেটে নিয়ে যায়। গাছগুলো রামগড় ওয়াপদা অফিস সংলগ্ন স-মিলে নিয়ে চিড়ানোর পর দরজা জানালার চৌকাঠ করে নাছিরের বাড়িতে নিয়ে যায়।

স-মিল স্টাফরা জানায়, ওই গাছগুলোর অনেক সরশ এবং অনেক পুরনো গাছ। যার প্রতিটির মূল্য হবে ৩০ থেকে ৪৫ হাজার টাকা। এই গাছগুলো কেটে নাছির তার বাড়ি নিয়ে গেছেন।

অফিস স্টাফ মোহাম্মদ নাছির উদ্দিনের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্যার গাছ কাটতে বলছে, তাই গাছ কাটা হয়েছে, কাটা গাছগুলো বর্তমানে কোথায় আছে এ বিষয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

নাছির উদ্দিন যে কর্মকর্তার কথা বলেছেন তার নাম দীবাংশু চাকমা। তিনি জানান, অফিসের গাছ কাটার বিষয়ে কিছু জানেন না। অফিসের কাজে বেশি ভাগই বাইরে থাকেন।

এদিকে গাছ কাটার সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে নড়েচড়ে বসে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও কর্মচারী। তারা রাতারাতি পুরনো কিছু গাছের ডালপালা বাইরে থেকে এনে অফিসের সামনে স্তুপ করে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

রামগড় উপজেলা বন কর্মকর্তা মোহাম্মদ সুলতানুল আজিম বলেন, বন বিভাগের অনুমতি ছাড়া কোনো সরকারি গাছ কাটা যায় না। কিন্তু পানি উন্নয়ন বিভাগ থেকে সেই নিয়ম মানা হয়নি। আমরা এই বিষয়ে অবগত নই।

About Saimur Rahman

Leave a Reply