Breaking News
Home / ভিডিও / কোচিংয় ব্যাবসার আড়ালে এসব কি ব্যাবসা চলছে ঢাকায়। গোপন ক্যামেরায় ধারন করা ভিডিও

কোচিংয় ব্যাবসার আড়ালে এসব কি ব্যাবসা চলছে ঢাকায়। গোপন ক্যামেরায় ধারন করা ভিডিও

দেখুন কোচিংয়ের নামে এসব কি চলছেঃ শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড এই কথা আমাদের ছোটবেলা থেকেই শিখানো হয়েছে। কিন্তু বর্তমানে এই শিক্ষা ব্যাবসায় পরিনত হয়েছে।  এখন দেশের সবচেয়ে বড় ব্যাবসা হলো শিক্ষা। আরো বড় বিষয় হলো এতে কোন ‍পুজি লাগে না।

ঢাকার শহরে ব্যাংয়ের ছাতার মত গজিয়ে উঠছে কোচিং সেন্টার। এসব কোচিং সেন্টারগুলোতে শিক্ষার অন্তারালে চলছে অন্য ব্যাবসা যা জাতিকে করেছে কলংকিত। এসব কোচিং সেন্টার আজ জাতির কলঙ্ক মেখে দিয়েছে। ভিডিও দেখলে আপনিও লজ্জা পাবেন।

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে পোষ্টের নিচে চলে যান।

আরো পড়ুনঃ

মোস্তাফিজকে খারাপ বোলার বল্লেন : ‘যাদব’

জয়ের জন্য শেষ তিন ওভারে চেন্নাইয়ের প্রয়োজন ছিল ৪৭ রান। আর মুম্বাইয়ের ২ উইকেট। ১৮ ও ১৯তম ওভারে ম্যাকগ্লেনাগান ও জাসপ্রিত বুমরাহর দুই ওভার থেকে ৪০ রান তুলে ফেলে চেন্নাই। তবে সাজঘরে ফেরেন ব্রাভো। জয়ের জন্য মোস্তাফিজের করা

শেষ ওভারে দলটির প্রয়োজন ছিল ৭ রান। প্রথম তিনটি বলে রান নিতে পারেননি যাদব। চতুর্থ বলে ফাইন লেগ দিয়ে ছয়ের পর পঞ্চম বলে কাভার দিয়ে চার মেরে দলকে এনে দেন দারুণ এক জয়।

ম্যাচ শেষে যাদব জানান, মোস্তাফিজের খারাপ বলের অপেক্ষায় ছিলাম। পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে কেদার যাদব বলেন, ‘আমি জানতাম আমি দৌঁড়াতে পারবো না এবং আমাকেই রান তুলতে হবে। ঠিক করেছিলাম এই ছয়টি বল খেলবো এবং উইকেটে থাকবো।

কিন্তু তিন বল পরেই আমি দেখলাম (তাহির) কিছুটা অস্বস্তি অনুভব করছিল। তবে আমি জানতাম যে বোলার অনেক চাপ নিয়ে আসবে। আমি অপেক্ষা করছিলাম আমার সুযোগের জন্য।জানতাম যে খারাপ বল আসবে।

About Admin Rafi

Leave a Reply