Breaking News
Home / ভিডিও / এই ধর্মের যে বিষয়গুলো আপনাকে লজ্জায় ফেলে দিবে।-ভিডিওতে দেখুন

এই ধর্মের যে বিষয়গুলো আপনাকে লজ্জায় ফেলে দিবে।-ভিডিওতে দেখুন

এই ধর্মের যে বিষয়গুলো আপনাকে লজ্জায় ফেলে দিবে। আমরা কোন ধর্মকে ছোট করছি না। শুধু সচেতনতা বৃদ্ধিতে সহায়ক ভুমিকা পালন করছি। এই বিষয়ে কারো কোন বক্তব্য থাকলে কমেন্টে জানাতে পারেন। সব ধর্মেই সামাজিকতা বা পোশাকে শালীনতার কথা রয়েছে।

কিন্তু এই বিষয়গুলো আমরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এরিয়ে যাই, যে কারনে দোষ হয় আমাদের ধর্মের। এখানে পোশাক বা পুণ্য হিসেবে গঙ্গা স্নান মুখ্য বিষয়। মুল বিষয় আমাদের সচেতনতা। কারন আমাদের এক একটি অসচেতনমূলক পদক্ষেপ মানেই আমাদের পুরো জাতিকে দোষারোপ করা।

সম্প্রতি এই ভিডিওটি ইউটিউবে প্রকাশ পায়। আমরা শুধু মাত্র সচেতনতা বৃদ্ধিতেই ভিডিওটি তুলে ধরেছি।  ইউটিউব চ্যানেলের সাথে আমাদের কোন সম্পৃক্ততা নেই। এ ব্যাপারে কোন বক্তব্য থাকলে কমেন্টে জানাতে পারেন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। সরাসরি ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে নিচে চলে যানঃ

অন্যরা যা পড়ছেঃ

প্রেমিকের সামনে প্রেমিকাকে গণধ’র্ষণ

দশম শ্রেণির এক নাবালিকাকে ধ’র্ষণের ঘটনায় তোলপাড় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের জলপাইগুড়ি বিভাগের আলিপুরদুয়ার জেলা। সোমবার রাত ৯টার দিকে এই নির্মম ঘটনাটি ঘটে আলিপুরদুয়ার পুরসভা লাগোয়া ভোলার ডাবরি এলাকায়।

অভিযোগ, সন্ধ্যার পর বেড়াতে বার হওয়া প্রেমিক-প্রেমিকাকে শারীরিকভাবে হেনস্থা করা হয়। এরপর হুমকি এবং অর্থ দাবি করা হয়। শেষে ৮-১০ জন মিলে প্রেমিককে টেনে অন্যত্র নিয়ে যায়। এরপর সেই নাবালিকাকে তার প্রেমিকের সামনেই পরপর দু’‌জন ধর্ষণ করে। রাতেই আহত নাবালিকাকে তার বাড়িতে পৌঁছে দেয় তার প্রেমিক। তবে ভয়ে কেউই বাড়িতে কিছু জানায়নি সেই নাবালিকা।

কিন্তু এরপরই মঙ্গলবার সকালে মেয়েটির শরীর খারাপ হয়। শেষপর্যন্ত বাড়ির সদস্যদের সব ঘটনা খুলে বলে সে। এরপর আলিপুরদুয়ার থানায় মেয়েটির বাড়ির লোক্ররা অভিযোগ দায়ের করে। এরপর দফায় দফায় মেয়েটিকে জেরা করেন পুলিশের কর্মকর্তারা।

জেরায় সেই নাবালিকা জানায়, রাতের অন্ধকারে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। তবে অভিযুক্তদের কাউকেই সে চেনে না। মুখ দেখলে চিনতে পারবে। এরপরই মেডিকেল পরীক্ষার জন্য সেই নাবালিকাকে আলিপুরদুয়ার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান পুলিশের কর্মকর্তারাও। ইতিমধ্যে সবদিক খতিয়ে তদন্ত করছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। তবে আগের তুলনায় মেয়েটির শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গেছে।

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুনঃ 

About Admin Rafi

Leave a Reply