Breaking News
Home / ভিডিও / বিশ্বের অদ্ভুত বড় দৈহিক অঙ্গের কিছু মানুষ। যাদেরকে দেখলে আপনি চমকে যাবেন (নতুন ভিডিও)

বিশ্বের অদ্ভুত বড় দৈহিক অঙ্গের কিছু মানুষ। যাদেরকে দেখলে আপনি চমকে যাবেন (নতুন ভিডিও)

বিশ্বের এমন বড় দৈহিক অঙ্গের কিছু মানুষ। যাদেরকে দেখলে আপনি বিচলিত হবেন। সবাই তো আর সমান নয়, এক একজনের দৈহিক আকার আকৃতি একেক রকমের হয়। কেউ সুন্দর কেউ কালো, কেউ মোটা, কেউ খাটো হলেও এদেরকে স্বাভাবিক বলা চলে। কিন্তু বিশ্বে এমনও কিছু মানুষ

খুজে পাওয়া গেছে যাদের আকার আকৃতি সাভাবিকের থেকে অনেক বড়। এক জনের যৌনাঙ্গ সাভাবিকের থেকে প্রায় ৪ গুন বড়। আবার একজন মেয়ের ঊর্ধ্বাঙ্গ স্বাভাবিকের থেকে প্রায় ৩ গুন বড়। ভিডিওটি দেখলে আপনি আসলেই বিচলিত হবেন। সুকরিয়া আমরা এদের থেকে অনেক ভাল আছি।

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে পোষ্টের নিচে চলে যান।

আরো পড়ুনঃ

বিয়ের মাত্র তিন দিন পরই ওরা সবাই মিলে আমাকে ধর্ষণ করল!

তিন দিনে সবে হল বিবাহিত জীবন৷ কিন্তু তার মধ্যেই মধুর স্মৃতির মাঝে আঁচড় কাটল বিশাল এক কালো দাগ তিন দিনের নব বিবাহিতা বধূকে ধর্ষণ করল তাঁরই স্বামী সহ স্বামীর বন্ধুরা৷ শুনতে অদ্ভুত লাগলেও এটাই সত্যি৷ ঘটনাটি ঘটেছে ১৭ এপ্রিল অসমের করিমগঞ্জ এলাকায়৷ জানা গিয়েছে,

দাবি মত পণ না পাওয়ায় এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে নির্যাতিতার স্বামী ও তার সঙ্গীরা৷ পুলিশ সূত্রে খবর, ছেলের বাড়ির দাবি মেটাতে বিয়েতে সোনা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল মেয়ের পরিবার,তবে স্বেচ্ছায় নয়৷ ছেলের বাড়ি থেকে পণ স্বরূপ সোনার গয়না দাবি করেছিল মেয়ের পরিবার৷

প্রথমে মেয়ের বিয়ে যাতে আটকে না যায়, সেই খাতিরে রাজি হলেও, পরে সেই সোনার গয়না দিয়ে উঠতে পারেনি নির্যাতিতার পরিবার৷ নির্যাতিতার বিশ্বাস ছিল বিয়ের পর একথা তাঁর স্বামীকে বুঝিয়ে বললে সে নিশ্চয়ই বুঝবে৷ কিন্তু না৷

নির্যাতিতা এই কথা জানাতেই তাঁর স্বামীর আচরণে অস্বাভাবিকতা লক্ষ্য করেন তিনি৷ পণ না পাওয়ার রাগে বিয়ের তিনদিনের মাথায় স্বামী ও তার বন্ধুরা নব বধূকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে৷ নির্যাতিতার দাবি, তাদের কাছ থেকে পণ স্বরূপ সোনার গয়না চাওয়া হলে তারা দিয়ে উঠতে পারেননি৷

এক সময়ের আলোচিত নায়িকা ময়ূরী এখন কি করেন জেনে নিন

এক সময়ের ঢাকাই ছবির বেশ আলোচিত নায়িকা ময়ূরী। তাকে এক নামে কেউ চেনে না এমন মানুষের সংখ্যা কমই হবে। এক সময়ে রূপালি পর্দায় খোলামেলা দৃশ্যের জন্য সবসময় আলোচনায় থাকতেন এই নায়িকা। তবে সেই পুরনো লাইফস্টাইলে তিনি আর নেই ঢাকাই ছবির প্রায় ৩০০শত ছবিতে

ময়ূরী অভিনয় করেন। পুরো নাম মুনমুন আক্তার লিজা ওরফে ময়ূরী এখন তিনি পরহেজগার নিয়মিত ৫ওয়াক্ত নামাজ আদায় করেন। দিনের বেশির ভাগ সময় নিজেকে ধর্মীয় কাজে নিয়োজিত রাখেন। মুনমুন আক্তার লিজা ওরফে ময়ূরী এখন খাদিজা হিসেবে পরিচিত হচ্ছেন এলাকাতে।

এই নায়িকা বলেন, অতীতের ভুলভ্রান্তির জন্য তওবা করে সারাজীবন ইসলামের পথে থাকবেন । শুধু তাই নয়, নিয়মিত নামাজ পড়ার পাশাপাশি নানান রকম নফল ইবাদত এমনকি সপ্তাহের ৫ দিনই রোযা রাখছেন।

তিনি আরো বললেন, বর্তমানে আমি নতুনভাবে জীবন শুরু করে বেশ সুখী জীবন যাপন করছি। আমি আমার অতীতের ভুলভ্রান্তির জন্য অনুতপ্ত। এখন জীবনের বাকিটা পথ এভাবেই ইবাদত-বন্দেগীর মধ্য দিয়েই পার করতে চাই। ইচ্ছে আছে ২০১৯ সালে হজ করার

About Admin Rafi

Leave a Reply