Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / ভারতে মুসলিম মেয়েকে বিয়ে, ছেলের বাবাকে থুতু চাটালো পঞ্চায়েত

ভারতে মুসলিম মেয়েকে বিয়ে, ছেলের বাবাকে থুতু চাটালো পঞ্চায়েত

ছেলে ভিন্ন ধর্মে বিয়ে করেছে। এর সাজা হিসেবে এক দলিত ব্যক্তিকে তার থুতু চাটতে বাধ্য করা হয়েছে। উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহরে সোনদা হাবিবপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয় পঞ্চায়েত এই শাস্তি দেয়। শুধু তাই নয়, শ্রীকৃষ্ণ নামের ওই ব্যক্তির পরিবারকে গ্রাম ছেড়ে চলে যাওয়ারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। খবর আনন্দবাজারের।

শ্রীকৃষ্ণ জানিয়েছেন, পঞ্চায়েতের বৈঠকের সময় আমাকে থুতু ফেলে চাটতে বলা হয়। কারণ আমার ছেলে এক মুসলিম নারীকে বিয়ে করেছে। পঞ্চায়েত আমাকে গ্রামছাড়া হতেও বলেছে।

তার অভিযোগ, পঞ্চায়েতের লোকজন আমার স্ত্রী ও মেয়েকে নগ্ন করে ঘোরানো উচিত বলেও দাবি তুলেছিল।

শ্রীকৃষ্ণ বলেছেন, তার ছেলে এবং ওই মুসলিম নারী আদালতে বিয়ের রেজিস্ট্রিও করেছে।

এদিকে স্থানীয় খুরজানগর থানা প্রথমে এই ঘটনার অভিযোগ নিতে অস্বীকার করলেও পরে পাঁচজনের নামে অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

দেহাত বুলন্দশহরের পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে তারা অভিযোগ পেয়েছেন। বিষয়টির তদন্ত চলছে। দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি আশ্বাস দিয়েছেন।

অন্যদিকে ভিন্ন ধর্মে বিয়ে করায় শ্রীকৃষ্ণের পুত্রবধূর পরিবারও তার পরিবারের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। কিন্তু আদালত সেই মামলা খারিজ করে দেয়। প্রাপ্তবয়স্ক দুই ব্যক্তিকে একসঙ্গে থাকার অনুমতিও দেয়া হয়।

রাজিয়া আদালতে বলেন, তার স্বামী শিবকুমারের সঙ্গে শ্বশুরবাড়িতেই তিনি থাকতে চান। স্বেচ্ছায় শিবকুমারের সঙ্গে চলে গিয়েছিলেন রাজিয়া। এরপর আদালত তাদের পুনর্বিবাহের নির্দেশ দেয়।

About News Desk

Leave a Reply