Monday, February 6

ইভটিজিংয়ে বাধা দেয়ায় স্কুলছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

51106_barisal-muder-pc-02ইভটিজিংয়ে বাধা দেয়ায় দশম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বরিশাল পলিটেকনিক্যাল ইন্সটিউটের কতিপয় বখাটে শিক্ষার্থী। শনিবার সকাল সাড়ে নয়টায় জেলা স্কুলের বর্ধিত ক্যাম্পাস সংলগ্ন এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত শিক্ষার্থী সাইদুর রহমান হৃদয় (১৫) শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাদ সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র। সে ভান্ডরিয়া উপজেলার শাহীন গাজীর ছেলে।
নিহত হৃদয়ের সহপাঠী গোলাম সাইদ রাফি জানায়, পলিটেকনিক্যাল ইন্সটিউটের শিক্ষার্থীরা তাদের স্কুলে এসে ছাত্রীদের উত্যক্ত করতো। মাস খানিক আগে হৃদয় এ ঘটনায় বাধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আজ  ১০ থেকে ১৫ জনের দল একত্রিত হয়ে হৃদয়কে স্কুলে আসার পথে একা পেয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এসময় তারা হৃদয়কে রক্ষা করতে গেলে পলিটেকনিক ইন্সটিউটের শিক্ষার্থীরা পালিয়ে যায়। হৃদয়কে উদ্ধার করে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে সকাল সোয়া দশটায় হৃদয় মারা যায়।
বিদ্যালয়ের প্রধান শাক্ষক পাপিয়া জেসমিন বলেন, তাদের বিদ্যালয়ের নতুন ভবনে নির্মান কাজ চলায় জেলা স্কুলের বর্ধিত ভবনে একাডেমিক কার্যক্রম চলছিলো। ক্লাশে নাস্তার বিরতিতে বের হয় হৃদয়। কিছুক্ষণ পরে জানতে পারেন পলিটেকনিকের কিছু ছাত্র তাকেসহ দুজনকে কুপিয়ে জখম করেছে। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হলে হৃদয়কে মৃত ঘোষনা করা হয়।
বরিশাল মেট্রোপলিটন উপ-পুলিশ কমিশনার গোলাম রউফ খান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের জন্য নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে টেক পোষ্ট বসানো হয়েছে।
তিনি বলেন ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটতে পারে। আহত ছাত্র রাফির কাছ থেকে এমন তথ্য জানানো হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply