Monday, January 30

লাইফস্টাইল

ইন্টারন্যাশনাল  ফ্যাশন ডিজাইনার রোজা’র লরাটো’র ২য় বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত

ইন্টারন্যাশনাল ফ্যাশন ডিজাইনার রোজা’র লরাটো’র ২য় বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত

এক্সক্লুসিভ, ফ্যাশন, বাংলাদেশ, বিনোদন, লাইফস্টাইল
নিউজ ডেস্ক: গতকাল ৭ জানুয়ারী ২০২৩ ইং ছিল আন্তর্জাতিক ফ্যাশন ডিজাইনার আফরোজা সিদ্দিকা রোজা প্রতিষ্ঠিত ‘লরাটো’র ২য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ছিল। লরাটোর ২য় প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাজধানীর রেডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেন-এ জাঁকজমক আয়োজনে লরাটো’র ২য় বর্ষপূর্তি উদযাপন করা হয়। আন্তর্জাতিক ফ্যাশন ডিজাইনার আফরোজা সিদ্দিকা রোজার অর্ভথনায় অনুষ্ঠানের মধ্যমনি ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী, উপস্থাপক, সংগীতশিল্পী এবং আবৃত্তিশিল্পী শম্পা রেজা, উত্তরা ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর ফারুক এম মাসুদ, এশিয়ান টিভির চেয়ারম্যান হারুন অর রশীদ (সিআইপি), জনপ্রিয় ফ্যাশন কোরিওগ্রাফার তানজিল জনি, রাকিব বাবু, মেকওভার আর্টিস নিশা, স্বদেশ টিভি ও স্বদেশ নিউজ২৪ এর প্রতিষ্ঠাতা আরজে সাইমুর রহমান, ফ্রেন্ডস ভিউ এর প্রতিষ্ঠাতা রবি চৌধুরী, র‌্যাম্প মডেল আসিফ জারদারিসহ ফ্যাশন জগতের পরিচিত মুখ। লরাটো’র ২য় বর্ষপূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠান...
সারা বছরের জন্য মটরশুঁটি সংরক্ষণ করবেন যেভাবে

সারা বছরের জন্য মটরশুঁটি সংরক্ষণ করবেন যেভাবে

লাইফস্টাইল
শীতের অনেক ধরনের সবজি এখন সারাবছর জুড়েই বাজারে পাওয়া। সেই তালিকায় মটরশুঁটির নাম নেই। পোলাও, খিচুড়ি যে কোনো খাবারের স্বাদ বাড়ায় এই সবজি। মটরশুঁটিতে ক্যালোরি নেই বললেই চলে। ১০০ গ্রাম মটরশুঁটিতে ৮০ ক্যালোরি থাকে। যা টাইপ ২ ডায়াবিটিসের প্রকোপ কমিয়ে দেয়। এছাড়াও এত আছে পটাসিয়াম। পটাসিয়াম ডায়াবিটিসের জন্য খুবই ভালো। বিশেষজ্ঞদের মতে, কড়াইশুঁটিতে আয়রন, জিঙ্ক, ম্যাঙ্গানিজ এবং কপারের মতো খনিজ পাওয়া যায়, যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।    সারা বছর মটরশুঁটি সংরক্ষণ করবেন যেভাবে, >  প্রথমে মটরশুঁটির খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এর পর > একটি পাত্রে পানি গরম করুন। পানি ফুটে উঠলে ১ টেবিল চামচ চিনি দিয়ে দিন। ২ কেজি মটরশুঁটির জন্য ১ টেবিল চামচ চিনি। > পানি ফুটে যাওয়ার পর আগুনের তাপ কমিয়ে দিতে হবে। এবার মটরশুঁটি দিয়ে দিন এবং ঢাকনা দিয়ে দিন। > এমন...
থাইরয়েডে দ্রুত ওজন বাড়ছে? জেনে নিন কিভাবে ওজন কমাতে পারেন

থাইরয়েডে দ্রুত ওজন বাড়ছে? জেনে নিন কিভাবে ওজন কমাতে পারেন

লাইফস্টাইল
থাইরয়েডের মতো রোগ শিশু থেকে বৃদ্ধ যেকোন বয়সেই হতে পারে। থাইরয়েডের কারণে কারো ওজন বাড়ে আবার কারো ওজন কমে। শরীরে নানা জটিলতাও দেখা দেয়। যেমন- কোষ্ঠকাঠিন্য, শুষ্ক ত্বক, কোলেস্টেরল, জয়েন্টে ব্যথা, বিষন্নতা ইত্যাদি।   থাইরয়েডের কারণে ওজন বেড়ে গেলেও তা সহজেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করে। জেনে নিন কোন খাবারগুলোকে রাখবেন খাবারের তালিকায় আর কোনগুলো এড়িয়ে যাবেন। এই খাবারগুলো থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণে উপকারী বলে মনে করা হয়। ১. চিয়া, বাদাম এবং কুমড়োর বীজে আছে ভরপুর জিংঙ্ক। চিয়া বীজ সারারাত ভিজিয়ে রেখে সকালে দইয়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন। ২. মটরশুঁটি একটি প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার। এটি থাইরয়েড় নিয়ন্ত্রণে রাখে। হজমশক্তি বাড়ায় এবং ওজন কমাতে সাহায্য করে। খোসাসহ মুগডালও খেয়ে দেখতে পারেন। ৩. ডিমের সেলেনিয়াম ওজন কমানোর জন্য কার্যকর বলে মনে করা হয়। তাই শরীরের প্র...
ফ্রিজে দুর্গন্ধ? যা করতে পারেন

ফ্রিজে দুর্গন্ধ? যা করতে পারেন

লাইফস্টাইল
ফ্রিজ কীভাবে পরিষ্কার কিরতে তা অনেকেই বুঝতে পারেন না। দিনের পর দিন ফ্রিজ ব্যবহারের ফলে তাতে দুর্গন্ধ হতে শুরু করে। বিশেষ করে কাঁচা মাছ, মাংস বা রান্না করা খাবার থেকে ফ্রিজে বেশি দুর্গন্ধ হয়। এই সমস্যার সমাধান করতে চাইলে এই টিপসগুলো নিতে পারেন। এতে ফ্রিজে দুর্গন্ধ তেমন একটা হবে না।   খাবার জমিয়ে রাখা ফ্রিজে অনেক দিন খাবার জমিয়ে রাখবেন না। কাঁচা মাছ, মাংস ভালো করে ধুয়ে টিফিন বক্সে রেখে তবে ডিপ ফ্রিজে রাখুন। না হলে ডিপ প্যাকেটে করে সেগুলি রেখে দিন। একইভাবে শাক-সবজিও রেখে দিন। তবে মাছ, মাংস বা শাক-সবজি অনেকদিন ফ্রিজে রেখে দেবেন না। ধনে পাতা, পুদিনা পাতা, মূলা ইত্যাদি খোলা অবস্থায় রাখবেন না। ফ্রিজে খাবার সবসময় ডেকে রাখবেন। ফ্রিজ পরিষ্কার করার সময় ভেতরের সমস্ত জিনিস বের করে তারপর পরিষ্কার করবেন। ডিশ ওয়াশার  ফ্রিজের প্রতিটি তাক খুলে ডিশ ওয়াশার দিয়ে সমস্ত তাক ধুয়ে নি...
কাঁচা মরিচ দীর্ঘদিন সংরক্ষণের উপায়

কাঁচা মরিচ দীর্ঘদিন সংরক্ষণের উপায়

লাইফস্টাইল
রান্নার একটি অপরিহার্য উপাদান হলো কাঁচামরিচ। কম ঝাল খান এমন মানুষও রান্নায় আলাদা ঘ্রাণ আনতে অন্তত একটা গোটা কাঁচালঙ্কা রান্নায় দিয়েই থাকেন। রান্নার সময়ে রান্না ঘরে কাঁচামরিচ যেন হাতের কাছেই পাওয়া তার জন্য কাঁচামরিচ বাড়িতে মজুত রাখেন অনেকেই। অনেকদিন কাঁচা মরিচ রাখলে নষ্ট হয়ে যায়। বিশেষ করে বর্ষায় এই সমস্যা বেশি করে দেখা যায়। তবে কয়েকটি উপায় জানা থাকলে দীর্ঘ দিন কাঁচা মরিচ মজুত করে রাখতে পারেন।   ১) বাইরে থেকে বাতাস ঢুকতে পারে না এমন কোনো পাত্রে কাঁচা মরিচ রাখবেন না। এতে দীর্ঘদিন সতেজ থাকবে। ২) কাঁচামরিচের বোঁটা ছিঁড়ে রাখুন। এতে সহজে পচে না। বোঁটাসহ রাখলে কাঁচা মরিচ পচে যাওয়ার আশঙ্কা অনেক বেশি। ৩) অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলে যেকোনো কিছুই ভালো থাকে। মরিচ দীর্ঘ দিন ভাল অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলে পেঁচিয়ে রাখতে পারেন। ৪) মরিচ ভুলেও পলিথিনের ব্যাগে রাখবেন না। এতে লঙ্কা পচে যেতে ...
এই ৭ অভ্যাস মারাত্মক ক্ষতি করছে আপনার কিডনির

এই ৭ অভ্যাস মারাত্মক ক্ষতি করছে আপনার কিডনির

লাইফস্টাইল
মানব শরীরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হল কিডনি বা বৃক্ক। কোনও কারণে কিডনি আক্রান্ত হলে বা কিডনিতে কোনওরকম সংক্রমণ হলে শরীরে একের পর এক নানা জটিল সমস্যা দানা বাঁধতে শুরু করে। তাই কিডনির সমস্যা বা অসুখকে ‘নিঃশব্দ ঘাতক’ বলেই ব্যাখ্যা করে থাকেন চিকিৎসকরা। তবে বর্তমানে আধুনিক জীবনযাপনের কিছু কিছু অভ্যাস মারাত্বক বিপদ ডেকে আনছে কিডনির ৷ বেশিরভাগ সময় মানুষ বুঝতেই পারে না শরীরের ভেতরে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে চলেছে রেচনতন্ত্রের প্রধান এই অংশটি।   চলুন জেনে নেওয়া যাক কোন ৭ টি অভ্যাস আমাদের অজান্তেই কিডনির ক্ষতি করে চলেছে।  কিডনির সুস্থতা বজায় রাখতে এই খারাপ অভ্যাসগুলো অবশ্যই এড়িয়ে চলা উচিত। ১. ওষুধের অত্যাধিক ব্যবহার : শরীর গঠনের জন্য ব্যবহারকারী হেলথ সাপ্লিমেন্টস ওষুধ এবং ব্যথা নাশকারী ওষুধ অর্থাৎ পেইনকিলারের ব্যবহার বর্তমানে প্রায়শই হয়ে থাকে৷ যদিও অতিরিক্ত ওষুধ বিশেষত ব্যথা নাশকার...
যেসব খাবারে ওজন বাড়ার সম্ভাবনা নেই

যেসব খাবারে ওজন বাড়ার সম্ভাবনা নেই

লাইফস্টাইল
বিভিন্ন ধরনের খাবার আছে যেগেুলো থেকে আপনি বেঁছে নিতে পারেন আপনার পছেন্দের খাবার। এসব খাবার আপনার ক্ষুধা মেটাবে এবং তৃপ্তিও দেবে। তবে ওজন নিয়ে চিন্তা। কী খাবে কতটুকু খাবেন এই নিয়ে চিন্তা লেগেই থাকে।   তবে আপনাকে বেঁছে নিতে হবে কম ক্যলরির খাবার যা আপনার ক্ষুধার মিটাবে সাথে তৃপ্তিও পাবেন। এরকম কয়েকটি খাবারের নাম জেনে নিতে পারেন-   সেদ্ধ আলু আলুতে কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ বেশি। যারা ডাইবেটিক রুগি তাঁরা ওজন কমাতে চাইলে আলু খাবেন না। এ ছাড়া যারা আছেন তারা এটি খেতে পারেন। আলুতে কার্বে হাইড্রেটের পরিমাণ বেশি থাকলেও এত আছে, প্রয়োজনীয় ভিটামিন, ফাইবার, স্টার্চ বা শ্বেতসার। স্টার্চ বা শ্বেতসার অনেক সবজিতেই থাকে। যাইহোক অন্যান্য সবজির তুলনায় আলুতে যে শ্বেতসার বা ষ্টার্চ থাকে তার ক্যালরির পরিমাণ দ্বিগুণ কম। এ কারণে আপনি প্রতি গ্রামে ২ ক্যালোরির পরিবর্তে ৪ ক্যালরি খেতে পারেন। ...
স্টেইনলেস-স্টিলের সিংক চকচকে রাখার উপায়

স্টেইনলেস-স্টিলের সিংক চকচকে রাখার উপায়

লাইফস্টাইল
স্টেইনলেস-স্টিলের সিংক ব্যবহারের ফলে অনেক সময় দেখবেন সাদা সাদা দাগ পড়েছে। আবার কালচেও হয়ে যায়। দেখলে মনে হয়, অনেক দিনের ময়লা জমে আছে। অনেক সময় রং উঠে এমন হয়। স্টেইনলেস-স্টিলের সিংক চকচকে করার কয়েকটি উপায় জেনে নেওয়া যাক।   ১. ম্যাজিক ইরেজার ব্যবহার করতে পারেন। ম্যাজিক ইরেজার হলো এক ধরনের স্পঞ্জ। এটিকে বলে 'মেলামাইন ফোম ক্লিনার ম্যাজিক স্পঞ্জ'। যেকোনো সুপার শপ বা অনলাইন শপে পেয়ে যাবেন এ ধরনের স্পঞ্জ। শুধু পানি দিয়ে ঘষে তুলে ফেলুন সিংকের ময়লা। সাদা দাগ যেখানে আছে সেই বরাবর ঘষুন, যাতে করে দাগ মিশে যায়। ২. আরেকটি উপায় হলো নেইলপলিশ রিমুভার। এটি সাদা হয়ে যাওয়া জায়গায় দিয়ে হালকা ঘষে নিন, তারপর ধুয়ে ফেলুন। ৩. সিংকের সাদা দাগ তুলতে ভিনেগার বা বেকিং সোডা ব্যবহার করতে পারেন। ৪. ফ্লোর চকচকে করার জন্য কিছু ক্লিনার পাওয়া যায়। যে ক্লিনারগুলো দিয়ে ফ্লোর পরিষ্কার করার পর পানি ...
চুল বুঝে শ্যাম্পু ব্যবহার

চুল বুঝে শ্যাম্পু ব্যবহার

লাইফস্টাইল
একেকজনের চুলের ধরন একেক রকম। সব রকম চুলের জন্য একই ধরনের শ্যাম্পু কার্যকর নয়। তাই চুল বুঝে শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। পরামর্শ দিয়েছেন শোভন মেকওভার স্যালনের রূপ বিশেষজ্ঞ শোভন সাহা। লিখেছেন ফাতেমা ইয়াসমীন চুলের সৌন্দর্য যত্নের ওপর নির্ভর করে। তেল ও নানা প্যাক দেওয়া, তারপর শ্যাম্পু করা চুলের যত্নের সবচেয়ে প্রচলিত ধরন। তার পরও চুলের মান নিয়ে থাকে নানা আক্ষেপ। আসলে চুলের সৌন্দর্য অনেকখানি নির্ভর করে চুলে কী শ্যাম্পু ব্যবহার করছেন তার ওপর।আপনি যে শ্যাম্পু ব্যবহার করছেন সেটি যদি চুলের জন্য কার্যকর না হয়, তাহলে হিতে বিপরীত হতে পারে।   শুষ্ক চুলের জন্য শুষ্ক চুলে ময়েশ্চারাইজারযুক্ত শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। ওমেগা থ্রি ময়েশ্চারাইজারসমৃদ্ধ শ্যাম্পু বেছে নিন। প্রোটিন শ্যাম্পু রুক্ষ চুলের জন্য ভালো। কুসুম গরম তেল চুলে মালিশ করে দুই ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। তারপর শ্যাম্পু করলে...
তরল দুধ ফুটিয়ে নাকি কাঁচা খাবেন?

তরল দুধ ফুটিয়ে নাকি কাঁচা খাবেন?

লাইফস্টাইল
  দুধ একটি আদর্শ খাবার। বড় এবং ছোট সকলের জন্য। আপনার শরীরের জন্য ক্যালশিয়াম, ফসফরাস, ভিটামিন, পটাশিয়াম, ভিটামিন ডি'র যোগান দেবে দুধ। আরো যেমন রোগ প্রতিরোগ ক্ষমতা, হাড়ও দাঁত মজবুত করা এসব কাজগুলোও করে থাকে।   এখন প্রশ্ন হলো দুধ কীভাবে খাবেন? আজকাল বাজারে প্যাকেটজাত পাস্তুরিত দুধ পাওয়া যায়। পাস্তুরিত করা থাকে বলে সরাসরি এই দুধ খেতে পারে মানুষ। ফুটানোর দরকার নেই। দুধ জীবাণুমুক্ত করার পদ্ধতিকে পাস্তুরাইজেশন বলে। জীবানুমুক্ত দুধকে পাস্তুরিত দুধ বলে। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, কাঁচা দুধ না ফুটিয়ে খাওয়া উচিত নয়। কাঁচা দুধে নানারকম জীবাণু থাকে। উচ্চ তাপমাত্রায় দুধ ফুটিয়ে নিলে জীবাণু মারা যায়। কাঁচা দুধে ই-কোলাই, সালমোনেলার মতো ক্ষতিকর ব্যাক্টেরিয়া থাকে। এই ব্যাক্টেরিয়া শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া...