Sunday, July 21

করোনায় বিপদগ্রস্ত মানুষের পাশে চিকিৎসক ও মডেল মিয়ামি

বিনোদন ডেস্ক, স্বদেশ কন্ঠ, সম্পাদনায়-আরজে সাইমুর: বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সরকার ১৬ মে পযন্ত ছুটি ঘোষণা করেছে। একইসাথে সকল গণপরিবহন ও সরকারী অফিস বন্ধ ঘোষণা করেছে। মধ্যবিত্ত মানুষেরা কোন রকমে এ দুযোর্গ মোকাবেলা করতে পারলেও বিপদে পরেছেন নিম্ন আয়ের মানুষেরা। করোনার প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের শোবিজ অঙ্গনেও। ইতোমধ্যে বন্ধ করা হয়েছে সব ধরণের শুটিং। পাশাপাশি তারকারাও করোনা নিয়ে নানান ধরনের সচেতনা মূলক পোষ্ট দিচ্ছেন তাদের ফেসবুকে। পরামর্শ দিচ্ছেন বাসায় থাকতে ও নিয়ম মেনে চলতে। অনেক শোবিজ তারকারাই নিজেদের জায়গা থেকে সাধারণ জনগণকে সচেতন করছেন।

কর্মহীন নিম্ন আয়ের মানুষের পাশে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রথম রানার আপ ফাতিহা খুলদ মিয়ামি। তিনি করোনা সংক্রমণ এড়াতে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলার পাশাপাশি নিয়মিত হাত ধোঁয়ার পরামর্শ দেন। এছাড়াও সবাইকে মুখে মাস্ক ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ করেন মিয়ামি।

এ প্রসঙ্গে ফাতিহা খুলদ মিয়ামি বলেন, ‘বর্তমানে আমি উত্তরার একটি বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত আছি। এছাড়াও আমি করোনাভাইরাস সচেতন মূলক কর্মকান্ডের সাথে যুক্ত আছি। আমি সবাইকে বলবো, হাত ধোঁয়ার জন্য কিন্তু প্রয়োজন চেয়ে অতিরিক্ত পানি ব্যবহার না করতে। ফলমূল-শাকসবজি ডিটারজেন্ট পাউডার ধুবেন না। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য শাক-সবজি, ফলমূল, দুধ, ডিম, মাছ, মাংস ও সুষম খাদ্যাভ্যাস গড়ে তুলুন। প্রয়োজন ছাড়া পিপিইর অপচয় না করি। লোক দেখা নয়, কাজ করবো মন থেকে মানুষের জন্য।’

তিনি আরও বলেন, সবাই নিজের বাসায় সাবধানে থাকুন। আমাদের সবাইকে যার যার জায়গা থেকে সতর্ক থাকতে হবে। প্রয়োজনে কিছু দিন ঘরে থাকতে হবে। আমরা যদি সতর্ক না থাকি, তা হলে এই ভাইরাস ছড়াতে বেশি সময় লাগবে না। তাই আমরা সতর্ক হয় নিজের জন্য, নিজের পরিবারের জন্য, সমাজের জন্য, জাতি জন্য এবং এই সুন্দর পৃথিবীর জন্য। দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আপনারা নিজের বাসা থাকুন।

উল্লেখ, ছোটবেলা থেকে জন্য কাজ করে যাচ্ছেন ফাতিহা খুলদ মিয়ামি। বর্তমানে তিনি নিয়মিত মডেলিং করছেন দেশের খ্যাতিমান ব্র্যাণ্ডের মডেল হিসাবে। মিডিয়াতে কাজের পাশাপাশি ডাক্তারি পেশাও চালিয়ে যেতে চান তিনি।

Leave a Reply