Sunday, July 21

ভূমিকম্পের ধ্বংসস্তূপের নিচে ‘অলৌকিক’ শিশুর জন্ম,

তুরস্ক-সিরিয়া সীমান্তে সোমবার ভূমিকম্পের পর ধ্বংসস্তূপের নিচে এক শিশুর জন্ম হয়েছে। এই নবজাতককে ‘অলৌকিক’ বলা হয়েছে।
ওই শিশুকে উদ্ধারের একটি ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করেছে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল জাজিরা। উত্তর সিরিয়ার আফরিন অঞ্চলে এ ঘটনা ঘটে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই নবজাতককে কোলে করে নিয়ে যাচ্ছেন উদ্ধারকারীরা। ধারণা করা হচ্ছে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানার কয়েক ঘণ্টা পর ধসে পড়া ভবনের নিচে জন্মগ্রহণ করে শিশুটি। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় হলো তার মা মারা গেছেন। খবর দ্য টেলিগ্রাফের।
এদিকে নবজাতকটিকে উদ্ধারের একটি ভিডিও টুইটারে শেয়ার করেছেন হোসাং হাসান নামের এক সিরীয় সাংবাদিক। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ধ্বংসস্তূপ থেকে এক প্রসূতিকে উদ্ধারের সময় শিশুটির জন্ম হয়।

এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, ধ্বংসস্তূপের মধ্যে পাওয়া নবজাতকের এই দৃশ্য তার মাথা থেকে যাচ্ছে না। এই মর্মান্তিক ভূমিকম্পে তার হৃদয় ব্যথিত।

অন্যদিকে সিরিয়ার কাতমা গ্রাম থেকে আহমেদ নামে এক ছোট ছেলেকে উদ্ধার করেছেন উদ্ধারকারীরা। উদ্ধারের ভিডিও প্রকাশ করেছে সিরিয়ান হোয়াইট হেলমেটধারী উদ্ধারকারী দল।

এতে দেখা যায়, ধ্বংসাবশেষের নিচে থেকে ছেলেটিকে বের করার জন্য ড্রিল মেশিন ব্যবহার করছেন তারা। তখন উদ্ধারকারীদের একে অপরের কাছে জরুরি নির্দেশনা দিতে চিৎকার করতে দেখা যায়। উদ্ধারকর্মীরা যখন তাকে চেপে ধরে নিরাপদে নিয়ে যাচ্ছিলেন তখন তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন এবং গায়ে রক্ত ও কাদা মাখা ছিল। পরে আহমেদকে একটি স্ট্রেচারে দেখা যায়; মুখে অক্সিজেন মাস্ক লাগানো অবস্থায় তাকে অ্যাম্বুলেন্সে হাসপাতালে নেওয়া হয়। তার পাশে থাকা একজন চিকিৎসক তাকে শান্তভাবে থাকতে বলছেন।

আহমেদ বা তার পরিবার সম্পর্কে খুব বেশি জানা যায়নি। নৃশংস যুদ্ধের কারণে তার পরিবার সিরিয়ার আলেপ্পোর উত্তরে কাতমা গ্রামে আশ্রয় নিয়েছে।

তুরস্ক-সিরিয়ার সীমান্তে আঘাত হানা ভূমিকম্পের ধ্বংসযজ্ঞ থেকে অনেক শিশুকে বাঁচানো যায়নি। আরেকটি ভিডিওতে দেখা যায়, উত্তর সিরিয়ার জিন্দিরেসে এক বাবা হাঁটু গেড়ে তার শিশুপুত্রের শরীরে ও কপালে চুমু খেতে দেখা যায়। স্থানীয়রা তাকে সান্ত্বনা দেওয়ার চেষ্টা করছেন।

Leave a Reply