Thursday, May 30

ঐতিহাসিক জয়ের পর পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে এসে যা বললেন সাকিব ও মাহমুদউল্লাহ…

নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ২৬৫ রানের টার্গেটে যখন ১২ রানে ৩ উইকেট এবং ৩৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ছিল বাংলাদেশ তখন সবাই মনে করেছিল বাংলাদেশের জয় অসম্ভব। কিন্তু সেই অসম্ভবকে সম্ভব করে বাংলাদেশকে জেতালেন সাকিব-মাহমুদুল্লাহ জুটি।

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে ডেকে নেয়া হলো সাকিব-মাহমুদউল্লাহ দু’জনকেই। অসাধারণ সেঞ্চুরির পর দু’জনই ম্যাচ সেরার দাবিদার। কাকে সেরা ঘোষণা করা হবে।

পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে দাঁড়িয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এমন ব্যাটিংয়ের রহস্য সম্পর্কে বললেন, ‘আমাদের এই জুটির সবচেয়ে বড় রহস্য হচ্ছে, আমরা আসলে একে অপরের সঙ্গে খুব বেশি কথা বলিনি। আমরা শুধু ব্যাটিংটাই করতেই চেয়েছি। ইতিবাচক থাকতে চেয়েছি। শুরুতে উইকেটে খুব সুইং ছিল। যখনই সুইং বন্ধ হলো, তখন ব্যাট করা সহজ হয়ে গেলো।

আমি মনে করি, এই টুর্নামেন্টে তামিম দারুণ ব্যাটিং করেছে। এ কারণে শুরুতেই তাকে হারিয়ে ফেলা আমাদের জন্য ছিল বিশাল ক্ষতির কারণ। সাকিব আর আমি চেয়েছিল শুধু গ্যাপে শট খেলতে এবং বাজে বল পেলেই সেগুলোকে বাউন্ডারির বাইরে পাঠাতে।’

সাকিব আল হাসান বললেন, ‘মাহমুদউল্লাহ যেমন বলেছেন, আমরা আসলে ব্যাট করার সময় খুব বেশি কথা বলিনি। আমরা আসলে শুরুতে ভাবিইনি যে, এই রান তাড়া করবো। আমরা শুধু চেয়েছিল ৪০ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করতে। এরপর দেখতে চাইলাম আমরা কোথায় আছি। আইসিসির কোনো ইভেন্টে একটা ম্যাচ জেতা মানে অনেক বড় কিছু। এখান থেকেই আমরা সামনে এগিয়ে যাওয়ার রসদ খুঁজে পাবো।’

উল্লেখ্য, পাঁচ উইকেট হাতে রেখে ১৬ বল বাকি থাকতে জয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। সাকিব ১১৫ বলে ১১৪ রান ও মাহমুদুল্লাহ ১১৭ বলে ১০২ রান করেন। দলীয় টার্গেট ২৬৫ রানের মধ্য এই জুটিই করে ২২৪ রান। তাদের অসাধারণ এই পার্টনারশীপে খুশির জোয়ারে ভাসলো পুরো বাংলাদেশ।

কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড ২৬৫ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশকে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শূণ্য রানে তামিমকে ও দলীয় ১২ রানে সৌম্য ও সাব্বিরকে হারিয়ে ছন্দ হারায় বাংলাদেশ। এরপর দলীয় ৩৩ রানের মাথায় মুশফিককে হারিয়ে পথ হারায় বাংলাদেশ।

তবে মূল পথে ফিরতে বেশি সময় নেয়নি টাইগাররা। অভিজ্ঞ সাকিব-মাহমুদুল্লাহ হাল ধরে বাংলাদেশের। সেই হাল তখনই ছাড়লেন তারা যখন জয়ের দ্বারপ্রান্তে দল। অসাধারণ জয়ে সেমিফাইনালে স্বপ্ন এখন ধরে রাখলো বাংলাদেশ। তবে সেমিতে যেতে হলে কালকের ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচটা ফলাফলের ওপর নজর রাখতে হবে।
– See more at: http://bn.mtnews24.com/kheladhula/172479/——-#sthash.oN5dl7Lb.dpuf

Leave a Reply