Wednesday, February 8

ক্যামেরায় ধরা পড়ল সত্যিকারের জীন। ভিডিওটি না দেখলে বিশ্বাসই হবে না….

ক্যামেরায় ধরা পড়ল সত্যিকারের জীন। ভিডিওটি না দেখলে বিশ্বাসই হবে না। অনেকেই জীন ভুতে বিশ্বাস করেন না। তাদের কাছে জীন ভুতের কোন অস্তিত্বই নেই। আবার অনেকে একটু বেশিই বিশ্বাস করে যার কারনে রাতে অথবা দিনে একা থাকতে পারে না।

একাকী থাকা অবস্থায় কারেন্ট গেলে কিংবা কোন শব্দ পেলে ভয়ের শেষ থাকে না। অনেকে তো চিৎকার চেচামেচি করে পুরো এলাকা সয়লাব করে ফেলে। যাই হোক, ভিডিওটি দেখে আপনারাই বিচার করুন।

ভিডিওতে দেখুন বিস্তারিত। ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে পোষ্টের নিচে চলে যান।

আরো পড়ুনঃ

টানা দু বছর ১২ বছরের নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণ করলো বাবা অতঃপর যা ঘটলো!

মেয়েকে দিনের পর দিন ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বাবার বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, কাউকে কিছু বললে, মেরে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে অত্যাচারের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয়! বাধা দিতে গেলে মেয়ের মা অর্থাৎ নিজের স্ত্রীকেও প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এ বাবা নাকি পাষণ্ড! এমনই নৃশংস ঘটনা ঘটেছে দিল্লিতে।

টানা দু’বছর ধরে নিজের ১২ বছরের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ভারতের পাঁচকুলা এলাকার এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। পেশায় রাজমিস্ত্রি ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পাঁচকুলা থানার পুলিশ। অভিযোগ দায়েরের পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত।

দু’বছর ধরে চলা এই অত্যাচার আর সহ্য করতে না পেরে ক্লাস ফাইভের নির্যাতিতা ছাত্রী নিজের স্কুল শিক্ষিকাকে বিষয়টি জানায়। মেয়েটি কান্নায় ভেঙে পড়ে এও বলে যে তার মাও সমস্ত বিষয়টি জানেন কিন্তু বাবার বেধড়ক মার ও প্রাণে মেরে ফেলার হুমকির ভয়ে সব কিছু গোপন রাখে।

ঘটনার কথা জানতে পেরেই স্কুল কর্তৃপক্ষ সাথে সাথে মেয়েটির মাকে স্কুলে ডেকে পাঠায় ও ঘটনার অভিযোগ দায়ের করার কথা বলে। তাদের সম্মতিতে ওই নির্যাতিতা ছাত্রীর শিক্ষক পুলিশকে সব জানান। পরে নির্যাতিতা পড়ুয়া ও তার মায়ের জবানবন্দিও নেয় পুলিশ। অভিযুক্তের খোঁজে দিল্লি ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে তল্লাশি চলছে।

Leave a Reply