Monday, February 26

এখনও মনে পড়ে মাইক জ্যাগারকে

50216_qqqqরোলিং স্টোন তারকা মাইক জ্যাগারের বয়স এখন ৭৩ বছর। এই বয়সেও তাকে অত্যন্ত আকর্ষণীয় দেখায় বলে মন্তব্য করেছেন তার সাবেক প্রেমিকা লুসিয়ানা গিমোনেজ মোরাদ। বলেছেন, মাইক জ্যাগার এতটা পথ পাড়ি দিয়ে এসেছেন। তবু তাকে খুব আকর্ষণীয় দেখায়। তবে তা যৌন সক্ষমতার দিক দিয়ে নয়। ব্রাজিলের মডেল লুসিয়ানার সঙ্গে ১৯৯৮ সালে রিও ডি জেনিরোতে সাক্ষাত হয় মাইক জ্যাগারের। তাদের অন্তরঙ্গতা গড়ায় শারীরিক সম্পর্কে। অবাধ যৌনাচারে মেতে ওঠেন তারা। এর ফলে লুসিয়ানা অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। এ সময়ে মাইক জ্যাকার আসক্ত হয়ে পড়েন সুপার মডেল জেরি হলের প্রতি। ১৯৯৯ সালে সেই সম্পর্ক লুসিয়ানার সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের ক্ষেত্রে অনুঘটকের কাজ করে। মাইক জ্যাগারের ঔরসে একটি পুত্র সন্তানের মা হন লুসিয়ানা। লুসিয়ানার নিজের বয়স এখন ৪৭ বছর। মাইক জ্যাগারের সঙ্গে তার সম্পর্কে ছেদ পড়লেও তিনি ভুলতে পারেন নি ওই মানুষটিকে। বলেছেন, তিনি এখনও খুব আকর্ষণীয়। আমাকে ভুলভাবে নেবেন না, তিনি আকর্ষণীয় যৌনতার দিক থেকে নন। লুসিয়ানা এ কথা বললেও তাদের মধ্যকার রোমান্টিক সেই সম্পর্কের ছেদ কিভাবে ঘটেছিল সে প্রসঙ্গে যান নি। শুধু বলেছেন, আমরা চুটিয়ে প্রেম করেছি। তারপর আমরা সন্তানের পিতামাতা হলাম। কোনো ছেদ তো ঘটেনি। তার প্রতি আমার যে ভালবাসা তা সরে এখন পড়েছে ছেলে লুকাসের ওপর। তার ছেলের নাম লুকাস মরিস মোরাদ-জ্যাগার। বর্তমানে লুসিয়ানার স্বামী ব্রাজিলের মারসেলো ডি কারভালহো। তিনি ব্রাজিলের টেলিভিশন নেটওয়ার্ক রেডি টিভির মালিক। এই টেলিভিশনেই দুটি চ্যাট শোর উপস্থাপনা করেন লুসিয়ানা। তিনি বলেন, মাইক জ্যাগার ও আমি এখনও বেস্ট ফ্রেন্ড। এখনও জ্যাগার একজন ভাল পিতা। সন্তান লুকাস সম্পর্কে বলেন, সে তার পিতা জ্যাগারের মতোই শান্ত।

Leave a Reply