Sunday, January 29

আহত পথচারীকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল আনসার সদস্যের

50344_b4আশুলিয়ায় বাসচাপায়  অজ্ঞাত এক আহত ব্যক্তিকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ দিলেন জাহাঙ্গীর আলম (৪০) নামের এক আনসার সদস্য। নিহত হয়েছে ওই অজ্ঞাত ব্যক্তিও। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো এক আনসার সদস্য। গতকাল সকালে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের কবিরপুর ওয়াপদা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে আনসার সদস্য জাহাঙ্গীর আলম বরগুনা জেলার সদর থানার হাউজিবুনিয়া গ্রামের জয়নুদ্দিনের ছেলে। সে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি  অব বাংলাদেশ লিমিটেডের আশুলিয়ার কবিরপুর উপকেন্দ্রে দায়িত্বরত ছিলেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা অর্কিড অ্যালিগ্যান্স পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের কবিরপুর ওয়াপদা এলাকায় পৌঁছলে পিছনে থেকে আসা একটি পিকআপ ভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটিকে ধাক্কা দেয়। এ সময় যাত্রীবাহী বাসটি সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অজ্ঞাত পরিচয়ের এক ব্যক্তিকে চাপা দিয়ে সড়ক থেকে বাসটি নিচে পড়ে যায়। পরে আনসার সদস্য জাহাঙ্গীরসহ আরো এক আনসার সদস্য অজ্ঞাত আহত ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার জন্য উত্তরবঙ্গ থেকে ছেড়ে আসা অন্য একটি যাত্রীবাহী বাসকে থামানোর চেষ্টা করে। কিন্তু ওই বাসটির চালক গাড়ি না থামিয়ে জাহাঙ্গীরকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে গেলে আহত হয় জাহাঙ্গীর ও তার সঙ্গে থাকা অপর এক আনসার সদস্য। এ সময় স্থানীয়রা আনসার সদস্য জাহাঙ্গীর ও অজ্ঞাত পরিচয়ের ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন। এ ব্যাপারে সালনা (কোনাবাড়ি) হাইওয়ে থানার সার্জেন্ট বেলাল হোসেন সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত আনসার সদ্যসের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ছাড়া অজ্ঞাত পরিচয়ের ওই মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। অন্য আনসার সদস্যের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

Leave a Reply