Breaking News
Home / জাতীয় / করোনা সন্দেহে ভৈরবে বিদেশ ফেরত ৩৪ জন কোয়ারেন্টাইনে

করোনা সন্দেহে ভৈরবে বিদেশ ফেরত ৩৪ জন কোয়ারেন্টাইনে

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে সন্দেহে গেল ৩ দিনে মোট ৩৪ জনকে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩২ জন পুরুষ এবং দু’জন নারী রয়েছে। তাছাড়া এদের অধিকাংশ ইতালি থেকে দেশে ফিরেছেন।

তাই, এসব বিদেশ ফেরত প্রবাসীদের পৌর ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্য সহকারীরা তাদের নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে অবস্থানের পরামর্শ দিচ্ছেন।

এছাড়াও করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক তাদের স্বাস্থ্যের খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। বিশেষ করে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির ব্যবস্থাপনায় আজ বুধবার থেকে শহরের ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে নব-নির্মিত ট্রমা হাসপাতালে ৫০ শয্যার একটি আইসোলেশন সেটার প্রস্তুত করেছেন। করোনাভাইরাসের ঝুঁকি আছে, এমন লোকজনকে রাত থেকে আইসোলেশন ইউনিটে রাখার চিন্তা করছে প্রতিরোধ কমিটি।

জানা গেছে, ভৈরবে গেল সোমবার থেকে বিদেশ ফেরত প্রবাসীদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা শুরু হয় । ফলে আজকে পর্যন্ত প্রায় ৩৪ জনকে তাদের নিজ বাড়িতে রেখে পর্যবেক্ষণ চলছে। প্রত্যেকের বাড়ির পৃথক কক্ষে তাদের রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারা ১৪ দিন পর্যবেক্ষণে থাকবেন।

এই সময় তাদের বাইরে চলাফেরা ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মেলামেশা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যদেরও চলাফেরা সীমিত করা হয়েছে। বিশেষ করে পরিবারের সদস্যদের নিজ ঘর ও আঙিনা পর্যন্ত এলাকায় চলাফেরা সীমাবদ্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচও ডা. বুলবুল আহমেদ বলেন, আজ সকাল ১০টার দিকে ট্রমা হাসপাতালে আইসোলেশন সেন্টারের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও প্রবাসী করোনায় আক্রান্ত বা সনাক্ত হয়নি। তারপর আমরা করোনা মোকাবেলা বা প্রতিরোধে সব ধরণের প্রস্তুতি নিচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের বেশির ভাগই ইতালি থেকে আসা। তাদের বিষয়ে আমাদের স্পষ্ট নির্দেশনা রয়েছে । সবাইকে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ঘরের নির্দিষ্ট কক্ষে থাকতে হবে।

About Saimur Rahman

Leave a Reply