Sunday, July 21

অবশেষে গণস্বাস্থ্যের কিট পরীক্ষার অনুমোদন

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের নিজস্ব ল্যাবে তৈরি করোনা পরীক্ষার কিটের কার্যকারিতা পরীক্ষার অনুমোদন দিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর। আজ বিকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান। তিনি বলেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র যে কিট উদ্ভাবন করেছে তার কার্যকারিতা পরীক্ষা করতে অনুমতি দেয়া হয়েছে। আইসিডিডিআরবি ও বিএসএমএমইউতে এ পরীক্ষা করা যাবে। এর আগে গণস্বাস্থ্যের পক্ষ থেকে এই কিট অধিদপ্তরে জমা দিতে গেলেও তা গ্রহণ করা হয়নি। পরে অবশ্য অধিদপ্তর জানিয়েছিল ওই কিট ভেরিফিকেশন করতে বলা হয়েছিল গণস্বাস্থ্যকে।
গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা  ও অন্যতম ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন, কিট পরীক্ষার অনুমতি দিয়ে ওষুধ প্রশাসন একটি চিঠি দিয়েছে বৃহস্পতিবার। অধিদপ্তর চিঠি দিয়ে বিএসএমএমইউ’র ভিসিকেও বিষয়টি অবহিত করেছে।

তিনি জানান, কিট পরীক্ষার জন্য গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র ইতোমধ্যে বাংলাদেশ চিকিৎসা গবেষণা পরিষদে নিয়ম অনুযায়ি আবেদন করেছে।

আগামী দুই এক দিনের মধ্যে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।
গত শনিবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র করোনা পরীক্ষার এ কিট আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করে। ওই দিন সরকারের ওষুধ প্রশাসনের প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানানো হলেও তারা কেউ যাননি। ওই দিন যুক্তরাষ্ট্রের গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি) কিটের নমুনা সংগ্রহ করে। পরে ওই প্রতিষ্ঠান কিট পরীক্ষার আগ্রহ জানিয়ে ৮০০ নমুনা চেয়েছে গণস্বাস্থ্যের কাছে। এক সপ্তাহের মধ্যেই এই নমুনা যুক্তরাষ্ট্রে পাঠাবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র।
গত রোববার উদ্ভাবিত কিট ওষুদ প্রশাসন অধিপ্তরে জমা দিতে যায় গণস্বাস্থ্যের একটি প্রতিনিধি দল। তবে ওই দিনও কিট গ্রহণ করা হয়নি। ওই দিন কিটের ভেরিফিকেশনের জন্য পরামর্শ দেয়া হয়। পরের দিন ওষুধ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করে জানানো হয় এই র‌্যাপিড কিট ব্যবহারে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন নেই।

Leave a Reply