Sunday, February 5

তেল চিটচিটে কেবিনেট পরিষ্কারের উপায়

 

বেশির ভাগ সময় কিচেন কেবিনেটগুলো চুলার ঠিক ওপরেই থাকে। তার ওপর আমাদের রান্নাঘরে চলে বিভিন্ন তরকারি ফোড়ন দেওয়া। তাতেই কিচেন কেবিনেটে জমতে শুরু করে তেল। আস্তে আস্তে হলুদ রং হয়ে তেল চিটচিটে হয়ে যায়।

 

খুব জেদি ধরনের ময়লা। কী উপায়ে দূর করবেন জেদি ময়লা, চলুন জেনে নিই।

 

থালা-বাসন ধোয়ার সাবান ও পানি

বেশির ভাগ কিচেন কেবিনেট গরম পানি এবং কয়েক ফোঁটা লিকুইড ডিশ সোপ মিশিয়ে পরিষ্কার করতে পারেন।

-প্রথমে একটি পাত্রে গরম পানি নিয়ে নিন। তাতে লিকুইড সোপ নিয়ে মিশিয়ে ফেনা তুলে নিন।

– থালা-বাসন ধোয়ার স্পঞ্জ ভিজিয়ে কিচেন কেবিনেট আস্তে আস্তে ঘসে নিন। স্পঞ্জ এমনভাবে ভিজাবেন না যাতে করে পানি বেয়ে পড়তে থাকে।

-ঘষামাজা শেষে পরিষ্কার কাপড় দিয়ে মুছে নিন। ভালো করে মুছে নেবেন যেন শুকিয়ে যায়। এ ক্ষেত্রে মাইক্রোফাইবার কাপড় ব্যবহার করলে ভালো।

 

সাইট্রাসযুক্ত ক্লিনার 

একটি প্রাকৃতিক ক্লিনার হলো সাইট্রাসযুক্ত ক্লিনার। টকজাতীয় জিনিসকে সাইট্রাস বলে।

– এমন ক্লিনার দিয়ে কেবিনেট পরিষ্কার করুন, যেটিতে সাইট্রাস তেল আছে।
– স্প্রে করে মাইক্রোফাইবার কাপড় দিয়ে মুছে নিতে হবে।

আপনার কাছে যদি সাইট্রাসযুক্ত ক্লিনার না থাকে, তবে ঘরেই বানিয়ে নিতে পারবেন। কিভাবে? চলুন জেনে নিই।

কমলা, মাল্টা বা লেবুর খোসা বা যেকোনো সাইট্রাস ফলের খোসা ছোট ছোট করে কেটে নিন। একটি জারের অর্ধেক নিয়ে নিন, তারপর সাদা ভিনেগার দিয়ে জার ভরে ফেলুন। রেখে দিন দুই থেকে তিন সপ্তাহ। তারপর ছেঁকে নিন অন্য জারে। ব্যস তৈরি।

 

বেকিং সোডা ও পানি

ময়লা যদি খুব বেশি জেদি হয় তাহলে বেকিং সোডা বেশ উপকারী।

– একটি পাত্রে অর্ধেক পানি এবং অর্ধেক বেকিং সোডা নিয়ে নিন। মেশাতে থাকুন যতক্ষণ না পর্যন্ত পেস্টে পরিণত হয়।

– বেকিং সোডার পেস্টটি সরাসরি ময়লার জায়গায় প্রয়োগ করুন। আস্তে আস্তে গোল গোল করে ঘষতে থাকুন।

– ময়লা উঠে গেলে পরিষ্কার পানিতে কাপড় ধুয়ে নিয়ে মুছে ফেলুন। খেয়াল রাখবেন যেন ভেজা না থাকে।

এই পদ্ধতিগুলো কাঠের কেবিনেটে ব্যবহার করা নিরাপদ। তবে বিশাল এলাকাজুড়ে করতে চাইলে আগে অল্প জায়গা মুছে দেখুন কোনো অসুবিধা হয় কি না।

 

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Leave a Reply