Thursday, June 20

সরকার ২০২৫ সালের মধ্যে শিশু শ্রম বন্ধে কাজ করছে : মুজিবুল

15052014091110am22child6শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক বলেছেন, সরকার ২০২৫ সালের মধ্যে সকল প্রকার শিশু শ্রম এবং ২০২১ সালের মধ্যে বিপজ্জনক শিশু শ্রম বন্ধে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। প্রতিমন্ত্রী আজ এখানে আয়োজিত এক গোল টেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে সব ধরনের বিপজ্জনক শিশু শ্রম এবং সকল প্রকার শিশু শ্রম বন্ধে আমরা আশবাদি। এ লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে সরকার নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আজ সকালে ডেইলি স্টার মিলনায়তনে “অভ্যন্তরীণ শ্রমিকদের নিরাপত্তা ও কল্যাণ নীতি ২০১৫ বাস্তবায়ন : এগিয়ে যাওয়া” শীষর্ক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
প্রতিমন্ত্রী এ জন্য মানসিকতা পরিবর্তনের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, কেবল মাত্র আইন ও নীতিই সমাজ থেকে শিশু অধিকার রক্ষা করতে পারে না। তিনি এ অবস্থার অবসানে সুশীল সমাজ, মিডিয়া, সাংস্কৃতিক কর্মী, বেসরকারি সাহয্য সংস্থা (এনজিও) এবং সমাজের অন্যদেরসহ সকল স্টেক হোল্ডারদের অংশ গ্রহনের মাধ্যমে একটি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান।
তিনি বলেন, শিশু শ্রম এবং গৃহ সহায়তা ইস্যুতে আমরা ডাবল স্ট্যান্ডার্ড এর ভূমিকা রাখি। আমরা বাইরে শিশু অধিকার রক্ষার কথা বললেও নিজ ঘরে এটি মানি না। বৈঠকে এনজিও মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন প্রোগ্রামের কো-অর্ডিনেটর আব্দুল্লাহ আল মামুন মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এতে তিনি বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর পরিচালিত একটি জরিপ রিপোর্টের উল্লেখ করে বলেন, ১.৭ মিলিয়ন শিশু শিশু শ্রমের সাথে সম্পৃক্ত এবং তাদের মধ্যে ১.২৮ মিলিয়ন শিশু বিপজ্জক শ্রমের সাথে সম্পৃক্ত। তিনি বলেন, দুর্ভাগ্যজনক, গৃহ শিশু পরিচারকরা এই জরিপের বাইরে রয়ে গেছে। মূল প্রবন্ধে যে কোন কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের আগে জাতীয় শিশু শ্রম নিমুর্ল নীতির সাথে গৃহ শ্রমিক রক্ষা নীতি প্রণয়নেরও পরামর্শ দেয়া হয়।অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে অভিনেতা ড. ইনামূল হক সমাজে গৃহ শ্রমিক ও শিশু শ্রমিকের ওপর সহিংসতার বিরুদ্ধে সামাজিক অবস্থানের পরিবর্তন আনতে বেশি করে সংস্কৃতি চর্চার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন এ বিষয়ে মিডিয়া গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব খন্দোকার মোস্তান হোসেন এবং নারী ও শিশু মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব আবুল হোসেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। সিএসআইডি, বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরাম, ওয়াল্ড ভিশন এবং শাপলা নীর যৌথ উদ্যেগে এ গোল টেবিল বৈঠকের আয়োজন করে।

Leave a Reply