Breaking News
Home / ভিডিও / হায় আল্লাহ.!! এটা আমি কি দেখলাম। দুর্বল হার্টের কেউ ভিডিওটি দেখবেন না প্লিজ

হায় আল্লাহ.!! এটা আমি কি দেখলাম। দুর্বল হার্টের কেউ ভিডিওটি দেখবেন না প্লিজ

হায় আল্লাহ.!! এটা আমি কি দেখলাম। দুর্বল হার্টের কেউ ভিডিওটি দেখবেন না প্লিজঃ অনেক সময় আমাদের চারপাশে এমন অনেক ঘটনা ঘটে যা দেখার জন্য আমরা প্রস্তুত থাকি না। এসব ঘটনা দেখে অনেক মানুষ মানষিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে। কারন সবার

সবকিছু দেখার ক্ষমতা থাকে। অনেক মানুষ দুর্বল হার্টের হয়ে থাকে।  এমন  অনেক মানুষ আছে যারা রক্ত দেখলেই বেহুশ হয়ে পড়ে। এটি তেমনই একটি ভিডিও। তাইতো যাদের হার্ট দুর্বল তারা দয়া করে ভিডিওটি দেখবেন না। দেখলে নিজ দ্বায়িত্বে দেখবেন।

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে পোষ্টের নিচে চলে যান।

আরো পড়ুনঃ

বাবাকে হত্যার দায়ে মা’র ফাঁসি চান ছেলে!

বাবা নিখোঁজ হওয়ার পরেই ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন নিখোঁজ রশীথের ছেলে দীপ্ত। ফেসবুকে তিনি লিখেন তার বাবাকে তিনি যে কোন মুহূর্তেই ফেরত চান। এরপরের দিনেই মাটিচাপা থেকে বের হয় রশীথের লাশ।

এরপর আস্তে আস্তে বেরিয়ে আসে রথীশ চন্দ্র ভৌমিকের স্ত্রী দীপা ভৌমিক স্নিগ্ধা ও প্রেমিক শিক্ষক কামরুল ইসলাম জাফরীর পরকীয়ার রসকষ। ঊাবার এমন অপ্রত্যাশিত মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডে জড়িত খলচরিত্রের মা দীপা ভৌমিকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি সন্তান দীপ্ত ভৌমিকের।

যা বাবার কাছে ক্ষমা চেয়ে প্রকাশ করেছেন। দীপ্ত ভৌমিক তার ফেসবুকে আইডিতে চারটা শব্দেই যেন অনেক না বলা কথা বলা হয়ে যায়, এমন বাক্যই লিখেছেন- ‘ক্ষমা করে দিও বাবা …’। দীপ্তর মনের মধ্যে পুষে রাখা বেদনার স্পর্শও পাওয়া যায় বাক্যটিতে।

পিপি রথীশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনার লাশ উদ্ধারের পর বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছেলে দীপ্ত ভৌমিক নৃশংস এ হত্যাকাণ্ড নিয়ে গত বুধবার ওই স্ট্যাটাসটি লিখেছেন তার ফেসবুকে। একই সাথে জড়িতদের দ্রুত বিচার দাবি

About Admin Rafi

Leave a Reply