Monday, February 6

হাসপাতালে চিকিৎসার নামে এসব কি হচ্ছে? প্লীজ ভিডিওটি দেখে সাবধান হন!

চিকিৎসার নামে এসব কি হচ্ছে
চিকিৎসা বিষয়ে পড়াশোনা না করেও অনেকে ডাক্তার সেজে চেম্বার দিয়ে বসে আছেন। মানুষ সুস্থতার জন্য চিকিৎসা নিতে গিয়ে ডাক্তারদের ভূল চিকিৎসায় আরও মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে।

হাসপাতালে কীভাবে একজন ধর্ষিতা নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়? ভিডিওতে দেখতে এখানে ক্লিক করুণ
সারাদেশে রাস্তার আনাচে-কানাচে ব্যাঙের ছাতার মতো গড়ে উঠেছে হাসপাতাল,ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার। এসব ক্লিনিক ও হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসা সেবার নামে চলছে বাণিজ্য। বর্তমানে আমাদের দেশের অধিকাংশ হাসপাতাল-ক্লিনিকের মালিক ও ডাক্তাররা সঠিক চিকিৎসা দেওয়ার পরিবর্তে উপার্জনকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকেন।

বর্তমানে আমাদের দেশের হাসপাতালগুলোতে তিনটি সমস্যা মহামারি আকার ধারণ করছে।
১. ডাক্তার বা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় ও ভুল চিকিৎসায় রোগির মৃত্যু।
২. সঠিকভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়াই জীবনকে মৃত ঘোষণা।
৩. আইসিইউ ও সিসিইউতে লাইফসাপোর্টের নামে রোগিকে আটকে রেখে মোটা অঙ্কের অর্থ আদায়।

দেশের চিকিৎসা ক্ষেত্রে নৈরাজ্য দিন দিন বেড়েই চলেছে। অস্ত্রোপচারের পর পেটের ভিতর ছুরি বা গজ রেখেই সেলাই দেওয়া,অসুস্থ অঙ্গের পরিবর্তে সুস্থ অঙ্গ কেটে ফেলা,দাঁত তোলার নামে শিক্ষানবিস ডাক্তাররা হাত পাকাচ্ছেন,অনেক হাসপাতালে ডাক্তারের পরিবর্তে ওয়ার্ড বয়রাই আবার সর্বেসর্বা। জটিল কঠিন অপারেশন করতেও দ্বিধা করছেন না তারা। আবার সুযোগ সুবিধাহীন সরকারি হাসপাতালে একশ্রেণির ডাক্তার,নার্স, আয়া-কর্মচারীর চরম দুর্ব্যবহারের সামনে রোগিরা থাকছেন বড়ই অসহায়। আর মানবসেবার নাম করে গড়ে উঠা প্রাইভেট হাসপাতালগুলোরও একই অবস্থা।

প্রতিদিন সংবাদপত্র খুললেই দেখা যায় দেশের কোথাও না কোথাও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বা ডাক্তারের অবহেলায় ও ভুল চিকিৎসায় রোগি মারা যাওয়ার খবর। সিজার করতে গিয়ে নবজাতকের নাড়ী-ভূড়ি বা অঙ্গ কেটে ফেলার খবর। মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ বা ভুল ইনজেকশনের কারণে রোগির মৃত্যুর খবর।

ভিডিওতে দেখুন

Leave a Reply