Thursday, February 2

এমন মুজরা নাচ আগে কখনো দেখছেন।- নিজ দায়িত্বে দেখুন

আরব বিশ্বে মুজরা নাচ খুবই জনপ্রিয়। এই নাচের জন্য আরবরা কোটি কোটি টাকা খরচ করে থাকে। এই নাচের সংস্কৃতি ইদানীং এশিয়াতেও জনপ্রিয় হচ্ছে।

তবে মুজরা শেখাটা এতটা সহজ নয়। অনেক সাধনা করতে হয়। তবে বাংলাদেশে মুজরার আনুষ্ঠানিক কোন স্কুল না থাকলেও অনেকেই মুজরা শিখতে বাহিরে যায়।

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে পোষ্টের নিচে চলে যান।

আরো পড়ুনঃ

স্বামী প্রবাসে অন্যের হাত ধরে উদাও স্ত্রী

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ২৬ জানুয়ারি দাগনভূঁইয়ার মাতুভূঁইয়া ইউনিয়নের মোমারিজপুর গ্রামের সৈয়দ আমিন বাড়ির খবির আহাম্মদের দক্ষিণ আফ্রিকা প্রবাসী ছেলে ইমাম হোসেন টুটুলের সাথে নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার আহাম্মদপুর গ্রামের চাপরাশি বাড়ির নূরনবীর মেয়ে ফাতেমা আক্তার সাথীর সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়।

বিয়ের পর ফাতেমা তার পড়ালেখা চালিয়ে যাবে মর্মে ফেনী সরকারি কলেজে ভর্তি হয়। বিয়ের দুই মাস পর তার স্বামী টুটুল জীবিকার তাগিদে আবার আফ্রিকায় চলে যায়। বছর খানেক পর থেকে সাথীর প্রতি তার স্বামীর সন্দেহ জাগে। পরে সে গত ডিসেম্বর মাসে বাড়িতে আসে।

এরপর সে জানতে পারে তার স্ত্রী সাথীর তার কলেজ বন্ধু দাগনভূঁইয়া আলাইয়ারপুর গ্রামের হাছান আহাম্মদ দুলালের ছেলে তানবির মাহমুদের সাথে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরবর্তীতে সে তার স্ত্রীকে অনেক বুঝানোর চেষ্টা করে। টুটুল তাকে বুঝাতে ব্যর্থ হয়।

মঙ্গলবার (৬ মার্চ) টুটুলের শ্বশুর বাড়ি থেকে তার স্ত্রী অনার্স পরীক্ষা দেওয়ার জন্য কলেজে গেলে সে আর বাড়ি ফেরেনি।এ ব্যাপারে দাগনভূঁইয়া থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, মেয়েটির বাবা ও স্বামী থানায় এসে বিষয়টি জানিয়েছে। তারা ধারণা করছে মেয়ে তানবির নামে ওই ছেলের সাথে পালিয়ে গেছে।

Leave a Reply