Monday, January 30

এ কেমন প্রাণী!!- সামুদ্রিক এই প্রাণীটি দেখলে আপনি অবাক হবেন। দেখুন ভিডিওটি

পৃথিবীতে কত লক্ষ কোটি প্রাণী রয়েছে তা আমাদের ধারনারও বাহিরে। সব প্রাণীদের আমাদের স্বচক্ষে দেখা তো দূরের কথা ইন্টারনেট, এনিমল চ্যানেল বই ঘাটা ঘাটি করেও সব বের করা অসম্ভব। বিজ্ঞানিরা সব প্রানিদেরকে শ্রেণী ভুক্ত করেছেন।

সেখান থেকে হয়তো আমরা একটা সম্যক ধারনা পেতে পারি। এমনই পাওয়া গেছে ব্যাতিক্রম এই প্রাণীটি। জন্মগত ভাবেই এর চোখ নেই। তবে অনুভূতি শক্তি প্রখর। অনুভূতি থেকেই শিকার খুজে বেরায় আবার অন্যদের হাত থেকে বেঁচে থাকে। ভিডিওটি দেখলে সত্যিই অভিভূত হবেন।

ভিডিওতে দেখুন বিস্তারিত। ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে পোষ্টের নিচে চলে যান।

আরো পড়ুনঃ

দুবাইতে সততার পরিচয় দিয়ে এক বিরল নজির দেখালো বাংলাদেশী যুবক

আরব আমিরাত প্রবাসী মোহাম্মদ সালমান সততার দৃষ্টান্ত দেখালেন। গত ৫ তারিখ দুপুর দু’টায় কর্মস্থলে যাওয়ার পথে ৫০ হাজার দেরহাম (প্রায় ১১ লক্ষ টাকা) কুড়িয়ে পান। কুড়ানো টাকা তিনি স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে নিয়ে জমা দেন। তার সততার দৃষ্টান্তস্বরূপ তাৎক্ষনিক সম্মাননা সরূপ একটি সার্টিফিকেট দেওয়া হয়। পাশাপাশি তাকে কিছুদিনের মধ্যে আনুষ্ঠানিক সম্মননা দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

ফেনী জেলার ফুলগাজী উপজেলার মুন্সিরহাট গ্রামের জসিম উদ্দিনের সন্তান মোহাম্মদ সালমান বিগত ৬ বছর থেকে আমিরাতে কর্মরত। দুবাইতে কর্মরত প্রবাসীদের মধ্যে ১ লাখ শ্রমিককে এ বছর বিশেষ এক গাইডবুক বিতরণ করবে কর্তৃপক্ষ। সেই গাইডবুকে শ্রমিকদের অধিকার, তাদের দায়িত্ব-কর্তব্য, সংযুক্ত আরব আমিরাতের রীতিনীতি এবং জরুরী পরিস্থিতি বা সমস্যার সময়টাতে করণীয় সম্পর্কে বিস্তারিত লেখা থাকবে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বলেছে-

‘নতুন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে গাইডবুকটি দুবাইতে কর্মরত সব শ্রমিকের হাতে পৌঁছাবে। তার মাধ্যমে এ দেশে তাদের জীবনযাপনের মান উন্নয়ন হবে এবং তারা সমস্যায় পড়া থেকে রক্ষা পাবে।’

দুবাই এর শ্রম বিষয়ক কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল বিন সুরোয়ার বলেন- ‘দুবাইতে কর্মরত ১০ লাখ শ্রমিককে শিক্ষিত করে তুলতে চাই আমরা। আমরা চাই তারা তাদের অধিকার, দায়িত্ব এবং এই দেশের সামাজিক মূল্যবোধ সম্পর্কে আরো সচেতন হোক। আমাদের লক্ষ্য হলো, দুবাইতে থাকার সময়টাতে যেন শ্রমিকেরা সুখী থাকে।’

দুবাই এর রেসিডেন্স ভিসার জন্য আবেদনের সময়টাতে যেসব নতুন শ্রমিক প্রশিক্ষণে অংশ নেবে, তারা গাইডবুক বিনামূল্যে পাবে। যারা ভিসা নবায়ন করবে তারাও একই প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যাবে। ২০১৮ সালে এক লাখ শ্রমিককে এই গাইডবুক দেয়া হবে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ গত বছর একটি সেন্টারেই ২০ হাজার শ্রমিককে প্রশিক্ষণ দিয়েছে।

Leave a Reply