Monday, January 30

যেভাবে এই মুসলিম মেয়েটি বিশ্ব সেরা পুরষ্কার পেল। দেখুন এক্সক্লুসিভ ভিডিওটি

মুসলিম মেয়েটি হল ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়ন
বহির্বিশ্বে এমনিতেই মুসলিমদের বদনাম। এরই মধ্যে এই মুসলিম মেয়েটি হল ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়ন। অবশ্য এর জন্য তাকে অনেক খেসারতও পোরাতে হয়েছে।

এমনি এমনি মেয়েটি এই পর্যায়ে পৌছুতে পারেনি। আজকের ভিডিওতে তার সব আদ্যোপান্ত দেখানো হয়েছে। যেভাবে সে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হল।

দেখুন ভিডিওটি। ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

ভিডিওটি পোষ্টের নিচে দেয়া আছে। ভিডিওটি দেখতে স্ক্রল করে পোষ্টের নিচে চলে যান।

আরো পড়ুনঃ

নিজ মেয়েকে দিনের পর দিন ধ’র্ষণ

মা মারা যাওয়ার পর নিজ বাবার হাতে মেয়ে ধ’র্ষিত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাবাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার একটি গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আটককৃত অভিযুক্ত ওই বাবার ২ মেয়ে ও ১ ছেলে সন্তান রয়েছে। আট মাস আগে অভিযুক্তের স্ত্রী সন্তান প্রসবের সময় মারা যান। তার বড় মেয়ের বয়স ১৪ বছর। মা মারা যাওয়ার আগে ওই মেয়ের বিয়ে হয় স্থানীয় এক ব্যক্তির সাথে। মা’র মৃত্যু হলে তার বাবা তাকে স্বামীর বাড়িতে যেতে বাধা-নিষেধ করতে থাকে।

মেয়ের জামাইকেও স্ত্রীর সাথে ঘর সংসার করতে বিরত রাখে। এ সুযোগে ঔরসজাত মেয়েকে নিজের বাড়িতে রেখে দেয় অভিযুক্ত বাবা। পরিবারসহ কক্সবাজার শহরে বেড়াতে নিয়ে গিয়ে রাতে বোর্ডিঙয়ে ওই মেয়ের ইচ্ছার বিরুদ্ধে যৌন মিলন করে। কক্সবাজার থেকে বাড়িতে ফিরে এসে মেয়েটি স্থানীয় লোকজন ও প্রতিবেশী নারীদেরকে বিষয়টি জানায়।

আরও জানা যায়, প্রতিবেশী লোকজন ওই অভিযুক্ত বাবাকে দ্বিতীয়বার বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করে। কিন্তু ওই বাবা নানা অজুহাতে বিয়ে থেকে বিরত থাকে। মেয়েকে বুকে চুরি ধরে, ভয় দেখিয়ে নিয়মিত যৌন নির্যাতন করতে থাকে। নির্যাতিত মেয়ে জানায়, তাকে কখনো পানের বরজে, কখনো গরুর গোয়াল ঘরে, কখনো বাড়িতে ধর্ষণ করে, সে আরো জানায়, প্রায় দেড় মাস আগে তার একটি মেয়ে সন্তান জন্ম হয়। লালন পালন ও ভরণ পোষণের অভাবে ওই মেয়েকে স্থানীয় কেরুনতলীতে দত্তক দেয়।

ঘটনারদিন রাতে পূর্বের ন্যায় শারীরিক নির্যাতনে চিৎকার করলে এলাকার লোকজন তাকে আটক করে স্থানীয় মেম্বারের কাছে হাজির করে। মহেশখালী থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নির্যাতিত মেয়ে সহ তার বাবাকে থানায় নিয়ে আসে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ধর্ষণের শিকার ওই মেয়ে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

এ ব্যাপারে মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, জন্মদাতা বাবা কর্তৃক ঔরসজাত মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন সহ সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করা হচ্ছে। সূত্র: ইত্তেফাক

Leave a Reply